For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

গর্ভাবস্থার দ্বিতীয় ত্রৈমাসিক : কিছু স্বাস্থ্যকর খাবার যেগুলি এইসময় খাওয়া উচিত

|

দ্বিতীয় ত্রৈমাসিক হল গর্ভাবস্থার এমন সময় যখন গর্ভাবস্থার প্রথমদিকের অস্বস্তি, ক্লান্তিগুলি চলে যায় এবং স্বস্তি বোধ হয়। গর্ভাবস্থার দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকের সময়, ভ্রূণের দ্রুত বৃদ্ধি এবং বিকাশ শুরু হয়। এইসময় শিশুর নখ, আঙ্গুল, চোখ, দাঁত, কেশ এবং হাড়ও গঠিত হয়। এছাড়া, এই ত্রৈমাসিকের সময় শিশুর নড়াচড়াও শুরু হয়।

গর্ভাবস্থার দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকের সময় স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া মা এবং ভ্রূণ উভয়েরই স্বাস্থ্য ভাল রাখতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। যেহেতু, এই সময়কালে ভ্রূণের বেশিরভাগ অঙ্গ তৈরি হয়, তাই মা বেশি খিদে অনুভব করতে পারে এবং শিশুর সুস্থ বিকাশের নিশ্চয়তা দিতে পর্যাপ্ত পুষ্টির প্রয়োজন হতে পারে।

দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকের জন্য পুষ্টির প্রয়োজনীয়তা

দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকের জন্য পুষ্টির প্রয়োজনীয়তা

চিকিৎসা বিশেষজ্ঞরা পরামর্শ দিয়েছেন যে, দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকের সময় মা-এর খাদ্যতালিকায় আয়রন, ভিটামিন ডি, ম্যাগনেসিয়াম, ফোলেট, ক্যালসিয়াম এবং ওমেগা ৩ ফ্যাটি অ্যাসিড গ্রহণ বাড়ানো প্রয়োজন। আয়রন ভ্রূণ-কে অক্সিজেন সরবরাহে সহায়তা করে, ক্যালসিয়াম স্নায়ু, পেশী এবং সংবহনতন্ত্রের মসৃণ কার্যকারিতা নিশ্চিত করে, ফোলেট প্রিম্যাচিওর বাচ্চা জন্ম দেওয়ার ঝুঁকি রোধ করে, ভিটামিন ডি ভ্রূণের হাড় এবং দাঁতের বিকাশের জন্য গুরুত্বপূর্ণ, ওমেগা -৩ ফ্যাটি অ্যাসিড মস্তিষ্কের স্বাস্থ্য ভাল রাখে। এছাড়াও, ক্যালোরির দৈনিক গ্রহণের পরিমাণ ৩০০-৫০০ ক্যালোরি বাড়ানো উচিত যাতে অবশ্যই উল্লিখিত সমস্ত পুষ্টি অন্তর্ভুক্ত করতে হবে। তবে, আপনার পেট সর্বদা ওভারলোড না রাখার চেষ্টা করুন কারণ, অতিরিক্ত ওজনের কারণে কিছু জটিলতা সৃষ্টি হতে পারে।

গর্ভাবস্থায় দাঁত ও মাড়ির সমস্যায় ভুগছেন? আপনার ঘরেই আছে এর থেকে মুক্তি পাওয়ার উপাদান

দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকের সময় স্বাস্থ্যকর খাবার

দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকের সময় সেরা স্বাস্থ্যকর খাবারের একটি তালিকা এখানে দেওয়া হল। একটি নোট তৈরি করুন এবং এগুলি অবশ্যই আপনার খাদ্যতালিকায় অন্তর্ভুক্ত করুন।

১) সী ফুড

১) সী ফুড

সী ফুড আয়রনের একটি সমৃদ্ধ উৎস যা, গর্ভাবস্থায় অতিরিক্ত হিমোগ্লোবিন উৎপাদন করতে সহায়তা করে। দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকের সময় শরীরে আয়রনের অভাবে অ্যানিমিয়া, প্রসবের পর হতাশা এবং অকাল জন্মের ঝুঁকি বাড়তে পারে। এই সময়ে প্রয়োজনীয় আয়রনের পরিমাণ হল ২৭ মিলিগ্রাম। আয়রনে সমৃদ্ধ অন্যান্য খাবারগুলি হল চর্বি ছাড়া মাংস, বাদাম এবং কলাই।

২) সাদা বিনস্

২) সাদা বিনস্

সাদা বিনস্ ক্যালসিয়াম সমৃদ্ধ যা, হরমোন এবং এনজাইম কার্যকারিতা, দাঁত এবং হাড় গঠন এবং ভ্রূণের পেশী ও সংবহনতন্ত্র ব্যবস্থার মসৃণ পরিচালনার মতো একাধিক প্রক্রিয়ার জন্য গুরুত্বপূর্ণ। ১০০ গ্রাম সিদ্ধ সাদা বিনস্-এ ৬৯ মিলিগ্রাম ক্যালসিয়াম রয়েছে। দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকের সময় ক্যালসিয়ামের অভাব অকাল জন্মের কারণ হতে পারে। তাই, গর্ভবতী মহিলাদের জন্য ক্যালসিয়ামের প্রস্তাবিত পরিমাণটি হল - ১০০০ মিলিগ্রাম। ক্যালসিয়ামের অন্যান্য উৎস হল - দুধ, দই, ডিম, ক্যালে এবং টফু।

৩) ব্রাউন রাইস

৩) ব্রাউন রাইস

ব্রাউন রাইসে ম্যাগনেসিয়াম এবং অন্যান্য পুষ্টি যেমন সেলেনিয়াম, ভিটামিন বি৬, ম্যাঙ্গানিজ এবং ফসফরাস রয়েছে। ১০০ গ্রাম ব্রাউন রাইসে ৪৩ মিলিগ্রাম ম্যাগনেসিয়াম থাকে। এই পুষ্টি ভ্রূণের দাঁত এবং হাড়ের বিকাশের জন্য উপকারি এবং এটি সেরিব্রাল প্যালসির ঝুঁকিও রোধ করে। দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকের সময় ম্যাগনেসিয়ামের অভাবে উচ্চ রক্তচাপ, অকাল জন্ম এবং গর্ভপাত হতে পারে। গর্ভবতী মহিলাদের প্রতিদিন (১৯-৩০ বছর বয়স) প্রায় ৩৫০ মিলিগ্রাম ম্যাগনেসিয়াম খাওয়া উচিত। অন্যান্য ম্যাগনেসিয়াম সমৃদ্ধ খাবার হল - কলা, বাদাম এবং দই।

৪) লোবিয়া

৪) লোবিয়া

লোবিয়া ফোলেট বা ফলিক অ্যাসিডের একটি ভাল উৎস যা, জিনগত উপাদান তৈরি করতে, লাল রক্তকণিকা উৎপাদন করতে এবং প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সহায়তা করে। দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকের সময় কোনও মহিলার দেহে ফোলেটের ঘাটতি মেগালোব্লাস্টিক অ্যানিমিয়া এবং নিউরাল টিউব সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাই, দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকের সময় প্রতিদিন ৪০০-৮০০ মিলিগ্রাম গ্রহণের পরামর্শ দেওয়া হয়। ফোলেটের অন্যান্য উৎস হল - গরুর মাংসের লিভার, অ্যাসপারাগাস, পালং শাক, ব্রাসেলস স্প্রাউট এবং অন্যান্য সবুজ শাকসবজি।

৫) চর্বিযুক্ত মাছ

৫) চর্বিযুক্ত মাছ

সালমন এবং টুনার মতো ফ্যাটযুক্ত মাছগুলি ভিটামিন ডি সমৃদ্ধ। দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকের সময় ভিটামিন ডি গ্রহণ ক্যালসিয়াম শোষণ এবং ভ্রূণ কঙ্কালের বিকাশের মতো একাধিক শারীরবৃত্তীয় প্রক্রিয়া উন্নত করে। এটি প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে, কোষের বৃদ্ধি এবং কোষ বিপাকে সহায়তা করে। ভিটামিন ডি এর অভাবে গর্ভকালীন ডায়াবেটিস, বাচ্চার ওজন কম এবং অকাল জন্মের ঝুঁকি থাকে। দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকের সময় ভিটামিন ডি-এর প্রস্তাবিত পরিমাণটি হল ২০০-৪০০ আই ইউ/ডি। সূর্যের আলো ভিটামিন ডি এর প্রধান উৎস। এছাড়া, পনির এবং ডিমের কুসুম জাতীয় খাবারগুলি ভিটামিন ডি সমৃদ্ধ।

গর্ভাবস্থায় ছোলা খাওয়ার উপকারিতা ও পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া

৬) ড্রাই ফ্রুটস্

৬) ড্রাই ফ্রুটস্

গর্ভাবস্থায় ড্রাই ফ্রুটস্ অত্যন্ত পুষ্টিকর খাবার। এতে আমন্ড, ডুমুর, কাজু, খেজুর এবং আরও অনেক কিছু রয়েছে যা আয়রন, ক্যালসিয়াম এবং প্রোটিন সমৃদ্ধ। ড্রাই ফ্রুটস্ খাওয়া দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকের সময় প্রয়োজনীয় সমস্ত স্বাস্থ্যকর পুষ্টি সরবরাহ করে। ড্রাই ফ্রুটস্-এর সবথেকে ভাল জিনিস হল - এটির দইয়ের মতো যেকোনও খাবারের সাথে, স্বাদ এবং পুষ্টির মান বাড়ানোর জন্য যুক্ত করা যেতে পারে।

দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকের সময় এই খাবারগুলি এড়ানো উচিত

দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকের সময় এই খাবারগুলি এড়ানো উচিত

ক) কাঁচা বা রান্না না করা মাংস, মাছ বা ডিম

খ) ব্লু চিজ

গ) মারকিউরি সমৃদ্ধ খাবার, যেমন - হাঙর

ঘ) প্রক্রিয়াজাত খাবার বা আলু চিপসের মতো তৈরি খাবার

ঙ) হট সস-এর মতো মশলাদার খাবার

চ) ২ কাপের বেশি কফি

ছ) কোলা জাতীয় কৃত্রিম মিষ্টি

English summary

Healthy Foods To Eat During The Second Trimester Of Pregnancy

Here is a list of healthy foods best suggested during the second trimester of pregnancy. Make a note and must include them in your diet plan.
X