১০-টা চিহ্ণ যে আপনার প্রসব শুরু হতে চলেছে

By: Riddhi Ghosh
Subscribe to Boldsky

এটা সেই মুহুর্ত যার জন্য আপনি শেষ ৯ মাস ধরে অপেক্ষা করে আছেন।সবারই সন্তানের জন্ম নিয়ে নিজস্ব কিছু ভাবনা থাকে।তার কারণ প্রতিটি সন্তানের জন্ম ও প্রসব আলাদা।তাই সন্তানের জন্মের আগের প্রতিটা ধাপ ভাল করে বোঝা ও আপনার প্রসব যণ্ত্রণার শুরুটা বোঝাও খুব দরকার।

প্রসবের পূর্ব ও প্রসবের শুরুর দিক অনেক কিছুর ওপর নির্ভর করে। যেমন যদি আপনার এর আগে কোনও সন্তান থেকে থাকলে,আপনার এই যণ্ত্রণার প্রতি প্রতিক্রিয়া এবং আপনি কতটা প্রস্তুত প্রসব যণ্ত্রণার জন্য।সব চেয়ে আগে আপনার দরকার আপনার ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করার যে সময় আপনর প্রসব যণ্ত্রণা শুরু হবে তখন প্রতি পদে আপনি কী করবেন।

এর ফলে আপনার হাতে কিছুটা সময় পাওয়া যাবে সন্তানের জন্মের আগে প্রস্তুতি নিতে।প্রসবের প্রক্রিয়া এক একজনের এক একরকম।এখানে দেওয়া হল কিছু স্বাভাবিক লক্ষণ যা আপনার প্রসব শুরুর আভাস দেবে।

গর্ভজাতর “নিচের দিকে পড়া”

গর্ভজাতর “নিচের দিকে পড়া”

এটা এমন একটা ঘটনা যা আপনার সন্তানের জন্মের কিছু সপ্তাহ আগে হবে যখন বুঝবেন সন্তান শ্রোণীর দিকে নেমে আসে।আপনি এটা বুঝবেন যখন দেখবেন বারবার আপনি প্রস্রাব করছেন।এটা আপনার প্রসবের শুরু হওয়ার এক আভাস।

জরায়ুর প্রসারণ

জরায়ুর প্রসারণ

আপনার জরায়ুও একটা পদ্ধতির মধ্যে দিয়ে যায় সন্তানের জন্মের আগে।আপনার জরায়ু বড় হয় এবং পাতলা হয় বেশ কিছুদিন ধরে প্রসবের জন্য প্রস্তুত হতে।এটা প্রতি মায়ের জন্য আলাদা হয়।

পেশীতে ক্রাম্প ও পিঠে ব্যাথা

পেশীতে ক্রাম্প ও পিঠে ব্যাথা

এটা প্রসব শুরু হওয়ার একটা বড় লক্ষণ।বিশেষ করে যদি এটা আপনার প্রথম প্রসব না হয়।আপনার পেশীতে ক্র্যাম্পের অনুভূতি হয় এবং কুঁচকিতে ও পিঠের নিচের দিকে ব্যথা হবে।

গাঁটগুলো হালকা লাগা

গাঁটগুলো হালকা লাগা

আরেকটা লক্ষণ যে আপনার প্রসব শুরু হতে চলেছে সেটা হল গাঁটগুলো আলগা বোধ করা।রিল্যাক্সিন হরমোন পুরো সময়টা কাজ করে যাতে আপনার লিগামেন্ট নরম ও হালকা হয়।

ডাইরিয়া

ডাইরিয়া

রিল্যাক্সিন হরমোন আপনার মলদ্বারের পেশীগুলোর আরাম দেয়।এর ফলে আপনার পেটের মধ্যে একটু হালকা গোলযোগের সৃষ্টি হয়।এটা আপনার প্রসব শুরু হওয়ার একটা বড় ইঙ্গিত।

ওজন বাড়া বন্ধ হওয়া

ওজন বাড়া বন্ধ হওয়া

আপনার গর্ভাবস্থার শেষের দিকে হঠাৎ করে খুব ওজন বেড়ে যায়। এরপর আপনি লক্ষ্য করবেন এক সময় ওজনটা একই জায়গায় আটকে গেছে। এটা কিন্ত বাচ্চার ওজন বাড়াতে কোনফ বাধা সৃষ্টি করবেনা।

বেশি ক্লান্ত বোধ করা

বেশি ক্লান্ত বোধ করা

আপনার গর্ভাবস্থার শুরুতে যতটা ক্লান্ত লাগত তার চেয়ে অনেক বেশি ক্লান্ত বোধ করবেন এখন।ব্লাডারের সক্রিয়তা ও ক্লান্তি কিছু কারণ এর।আবার কিছু কিছু মায়ের হঠাৎ হয় অফুরন্ত শক্তি।

যোনি স্রাবের রঙ বদল

যোনি স্রাবের রঙ বদল

আপনার যে প্রসব শুরু হয়ে গেছে সেটা বোঝার আরও একটা উপায় হল, দেখবেন যে আপনার যোনি স্রাব আগের থেকে অনেক বেশি গাঢ় হয়ে গেছে।লক্ষ করে দেখবেন আপনার শ্লৈষ্মিক প্লাগ আর নেই।

ঘনঘন সঙ্কোচন অনুভব করা

ঘনঘন সঙ্কোচন অনুভব করা

যত দিন এগিয়ে আসবে দেখবেন আপনার সঙ্কোচন বেড়ে চলেছে।পিঠের পিছন দিকে থেকে তলপেটের নিচের দিকে আস্তে আস্তে সঙ্কোচনটা ঘুরে বেড়াবে।এগুলোই লক্ষণ যে আপনার প্রসব শুরু হচ্ছে।

জলের স্তর ভেঙে যাওয়া

জলের স্তর ভেঙে যাওয়া

অনেকর কাছেই যে মুহুর্তে প্রসব যণ্ত্রণা শুরুর চিহ্ন বলা হয়, এটাই সব চেয়ে আগে মনে পড়ে।কিন্ত এটা সত্যি নয়।জলের স্তরটা ভাঙে হয়ত মাত্র ১৫ শতাংশ ক্ষেত্রে।তাই প্রসব শুরুর ইঙ্গিত হিসেবে এটা ঘটবেই এমন নয়।

English summary
It is the moment that you have been waiting for the past 9 months. Everyone has an opinion about childbirth. You will also have one when you are done with your childbirth. This is because every childbirth and every labour is different.
Story first published: Wednesday, November 30, 2016, 14:45 [IST]
Please Wait while comments are loading...