For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

পেঁয়াজের পিঁয়াজি!

|

উত্তর ভারতীয় রান্নায় এর কদর থাকলেও দক্ষিণ ভারতে অনেকেই এই সবজিটিকে ঘরে তুলতে চান না। ফলে তাদের শরীরের যে কী মারাত্মক ক্ষতি হয়, তা বলে বোঝানোর নয়! মানে! পেঁয়াজের সঙ্গে শরীরে কী সম্পর্ক? আছে মশাই আছে। তাই তো এই প্রবন্ধেটি লেখা।

"যত কাঁদবেন, তত হাঁসবেন"- পেঁয়াজের ক্ষেত্রে এই কথাটা দারুনভাবে কার্যকরী। কারণ এই সবজি কাটতে গিয়ে চোখ ফুলিয়ে কাঁদতে হয় ঠিকই। কিন্তু শরীরেরও কম উপকার লাগে না! একাধিক গবেষণায় ইতিমধ্যেই এ কথা প্রমাণিত হয়ে গেছে যে পেঁয়াজের শরীরে উপস্থিত বেশ কিছু উপকারি উপাদান একাধিক রোগের চিকিৎসায় বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে। যেমন ধরুন...

১. ডায়াবেটিসকে নিয়ন্ত্রণে রাখে:

১. ডায়াবেটিসকে নিয়ন্ত্রণে রাখে:

একেবারে ঠিক শুনেছেন! ২১ শতকের সব থেকে ভয়ঙ্কর এই রোগকে দাবিয়ে রাখতে পেঁয়াজের কোনও বিকল্প হয় না বললেই চলে। আসলে এই সবজিটিতে উপস্থিত বেশ কিছু উপদান রক্তে শর্করার মাত্রাকে বাড়তে দেয় না। সেই সঙ্গে ইনসুলিনের ঘাটতি যাতে দেখা না দেয়, সেদিকেও খেয়াল রাখে। ফলে ডায়াবেটিসের প্রকোপ বৃদ্ধির সুযোগই থাকে না।

২. অনিদ্রা দূর করে:

২. অনিদ্রা দূর করে:

আপনি কি রাতের তারা? ঘরির কাঁটা সকালের দিকে এগিয়ে গেলেও চোখের পাতা এক করতে পারেন না? তাহলে তো প্রতিদিনের ডায়েটে পেঁয়াজের থাকা চাইই চাই। কারণ ইনসমেনিয়ার মতো রোগের উপশমে এই সবজিটি দারুন কাজে আসে।

৩. ত্বক এবং চুলের স্বাস্থ্য ভাল করে:

৩. ত্বক এবং চুলের স্বাস্থ্য ভাল করে:

অতিরিক্ত চুল পরার সমস্যা দূর করার পাশাপাশি ত্বকের সৌন্দর্য বাড়াতে পেঁয়াজের কোনও বিকল্প নেই বললেই চলে।

৪. কোলেস্টেলের মাত্রা কমায়:

৪. কোলেস্টেলের মাত্রা কমায়:

শরীরে ভাল কোলেস্টেরল বা এইচ ডি এল-এর মাত্রা বাড়িয়ে একদিকে যেমন শরীরকে চাঙ্গা রাখে, তেমনি অন্যদিকে খারাপ কোলেস্টরলের পরিমাণ কমিয়ে হার্টের কর্মক্ষমতা বাড়ায়। এই ভাবে নিজের বিশেষ ক্ষমতা বলে পেঁয়াজ আমাদের আয়ু বাড়াতে বিশেষভাবে সাহায্য করে থাকে।

৫. স্মৃতিশক্তির উন্নতি ঘটে:

৫. স্মৃতিশক্তির উন্নতি ঘটে:

সম্প্রতি প্রকাশিত একটি গবেষণাপত্র অনুসারে নিয়মিত কাঁচা পেঁয়াজ খেলে ব্রেন পাওয়ার বৃদ্ধি পেতে শুরু করে। ফলে স্মৃতিশক্তির যেমন উন্নতি ঘটে, তেমনি নার্ভাস সিস্টেমের কর্মক্ষমতা বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে একাধিক ব্রেন ডিজিজ হওয়ার আশঙ্কাও হ্রাস পায়।

৬. ক্যান্সার বিরোধী:

৬. ক্যান্সার বিরোধী:

ব্রেন, কোলোন এবং ঘারের ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা একেবারে শূন্যতে এসে দাঁড়ায় যদি প্রতিদিন পেঁয়াজ খাওয়া যায়। কারণ এই সবজিটিতে উপস্থিত বেশ কিছু উপাদান শরীরের অন্দরে ক্যান্সার কোষের জন্ম হতে দেয় না। ফলে এমন ধরনের মারণ রোগ ধারে কাছেও ঘেঁষতে পারে না।

৭. মুখের গন্ধ দূর করে:

৭. মুখের গন্ধ দূর করে:

কাঁচা পেঁয়াজ খেলে মুখ গহ্বরের উপস্থিত ব্যাকটেরিয়াগুলি মরতে শুরু করে। ফলে মুখের দুর্গন্ধ দূর হয়। সেই সঙ্গে মাড়িতে নানাবিধ রোগ হওয়ার আশঙ্কাও কমে।

English summary

উত্তর ভারতীয় রান্নায় এর কদর থাকলেও দক্ষিণ ভারতে অনেকেই এই সবজিটিকে ঘরে তুলতে চান না। ফলে তাদের শরীরের যে কী মারাত্মক ক্ষতি হয়, তা বলে বোঝানোর নয়! মানে! পেঁয়াজের সঙ্গে শরীরে কী সম্পর্ক? আছে মশাই আছে। তাই তো এই প্রবন্ধেটি লেখা।

Onions are said to be a great food ingredient for diabetics as it controls sugar levels in the blood and also increases insulin in the body.
Story first published: Saturday, June 24, 2017, 14:33 [IST]
X