For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

বিশ্ব পরিবেশ দিবস ২০২০ : বাড়ির পরিবেশ ঠিক রাখতে লাগান এই ঘরোয়া উদ্ভিদগুলি

|

প্রতিবছর ৫ জুন 'বিশ্ব পরিবেশ দিবস' পালিত হয়। এবারের বিশ্ব পরিবেশ দিবসের থিম হল 'জীববৈচিত্র্য'। রাষ্ট্রসংঘের মতে, যেভাবে পৃথিবী থেকে অন্যান্য প্রজাতির জীবের সংখ্যা কমে যাচ্ছে তা যথেষ্টই চিন্তার। তাই এই বছরটিতে, জীববৈচিত্র্য রক্ষার জন্য জরুরি পদক্ষেপের আহ্বান জানিয়ে এই দিবস পালন করা হচ্ছে। জীববৈচিত্র্য না থাকলে মানুষও বাঁচতে পারবে না। তাই, নিজেকে বাঁচাতে হলে সবার আগে পরিবেশকে বাঁচান।

পরিবেশের উন্নতির জন্য আমাদের একটি ছোট্ট উদ্যোগও বড় আকার ধারণ করতে পারে। প্রকৃতি আমাদের এমন অনেক কিছু দান করেছে, যার কারণে আমরা স্বাস্থ্যকর জীবনযাপন করতে পারি। তাই, প্রকৃতি আমাদের যা দিয়েছে তার মূল্য বোঝা এবং তাকে সম্মান করা আমাদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

এমন কিছু গাছ আছে যেগুলি আপনি আপনার বাড়িতে লাগিয়ে চারপাশের বাতাসকে বিশুদ্ধ করতে পারেন। আসুন জেনে নেওয়া যাক এরকম কয়েকটি গাছপালা সম্পর্কে।

মানি প্ল্যান্ট

মানি প্ল্যান্ট

এটি সাধারণত একটি খুব সুন্দর ইনডোর প্ল্যান্ট। এর রক্ষণাবেক্ষণে খুব বেশি পরিশ্রমও করতে হয় না। সামান্য যত্ন পেলেই এই গাছ রূপের ছটা ছড়িয়ে তরতরিয়ে বেড়ে ওঠে। অনেকেই বিশ্বাস করেন যে, ঘরে মানি প্ল্যান্ট রাখলে গৃহস্থের আর্থিক উন্নতি অবধারিত। ঘরের বাতাস শুদ্ধ রাখতে এই গাছ বিশেষ সহায়ক। এই গাছটি রাতে অক্সিজেন দেয় এবং বায়ুকে পরিশুদ্ধ করে।

স্নেক প্ল্যান্ট

স্নেক প্ল্যান্ট

স্নেক প্ল্যান্ট লিলি গোত্রের একটি বিশেষ ঘরোয়া উদ্ভিদ। একে "মাদার-ইন-ল'স টাং" (Mother-in-law's Tongue) নামেও অভিহিত করা হয়। এই গাছটি বাড়ির এমন জায়গায় রাখতে হবে যেখানে হালকা আর্দ্রতা আছে। এই গাছ বৃদ্ধি করতে আর্দ্রতা প্রয়োজন। এই উদ্ভিদটি, অনেক ক্ষতিকর পদার্থ শোষণ, বায়ু পরিশোধন করে। নাসার একটি গবেষণায় দেখা গেছে যে, এই গাছ আপনার চারপাশের বাতাস থেকে ফর্মালডিহাইড, নাইট্রোজেন অক্সাইড, জাইলিন, বেনজিনের মতো টক্সিন অপসারণ করে বাতাসকে শুদ্ধ করে তোলে।

অনেক সময় স্নেক প্ল্যান্ট বাতাসে আর্দ্রতা নিঃসরণ করে এলার্জিবাহী কণাকে হ্রাস করে। এই গাছ সিক বিল্ডিং সিন্ড্রোমের জন্য দায়ী বিষাক্ত উপাদানগুলি ফিল্টার করে বায়ু বিশোধক হিসেবে কাজ করে।

অ্যালোভেরা

অ্যালোভেরা

অ্যালোভেরা ঘৃতকুমারী নামেও পরিচিত। এই উদ্ভিদে অনেক ঔষধি গুণ পাওয়া যায়, পাশাপাশি ত্বক, চুল ভালো রাখতেও এর জুড়ি মেলা ভার। বাড়ির মধ্যে রাখার জন্য এটি সবথেকে ভালো বিকল্প। অ্যালোভেরা বাতাস পরিশোধন এবং ঘর ঠান্ডা করার আদর্শ গাছ। এই গাছটি বৃদ্ধি করতে খুব বেশি জল এবং সূর্যের আলোর প্রয়োজন হয় না। এই গাছ বায়ুতে থাকা ফর্মালডিহাইড, বেনজিন এবং কার্বন মনোঅক্সাইড অপসারণ করে।

তুলসী

তুলসী

ঘরে তুলসী গাছ লাগানো শুধুমাত্র আমাদের সংস্কৃতিরই অংশ নয়, পাশাপাশি এর ঔষধি গুণাগুণও প্রচুর। এটি বাড়ির আঙ্গিনায় লাগানো হয়। এটি সামান্য সূর্যের আলোতেই বেড়ে উঠতে পারে। এটি মশা, পোকামাকড় দূর করে এবং বাতাসে অক্সিজেনের পরিমাণ বাড়িয়ে তোলে। দারুণভাবে বায়ু-পরিশোধনকারী এই গাছটি। এছাড়া, এটি বাতাস থেকে অনেক ক্ষতিকারক রাসায়নিক এবং ব্যাকটেরিয়া পরিষ্কার করে।

স্পাইডার প্ল্যান্ট

স্পাইডার প্ল্যান্ট

স্পাইডার প্ল্যান্ট এমন একটি উদ্ভিদ যা বায়ু বিশোধকের মতো কাজ করে। এই উদ্ভিদটি বাতাস থেকে জাইলিন, বেনজিন, ফর্মালডিহাইড এবং কার্বন মনোঅক্সাইডের মতো ক্ষতিকারক উপাদানগুলি ফিল্টার করে। এই গাছের পিছনে বেশি সময় দিতে হয় না, পরিচর্যার জন্য বেশি কষ্ট করার প্রয়োজন পড়ে না।

English summary

World Environment Day 2020 : Indoor Plants That Produce the Most Oxygen

Carefully selecting and positioning the right house plants can ultimately make your home a healthier place to relax.
X