For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

ফলের রসে বিদায় জানান অতিরিক্ত ওজনকে!

By Swati
|

বিরামহীন কাজ নিয়ে ব্যস্ত থাকাই এখন মানুষের কাছে একমাত্র ধ্যানজ্ঞান। সেই কারণেই তো সকালে চোখ খোলা থেকে শুরু করে রাতে শুতে যাওয়া পর্যন্ত মানসিক চাপে জর্জরিত প্রত্যেকেই। ব্যস্ততার কারণে ব্রেকফাস্ট থেকে ডিনার, কোনওটাই আর ঠিকঠাক করা হয়ে ওঠে না। আর এর মাসুল দিতে হয় আমাদের শরীরকে। ফলে, দিনেদিনে ওজন বৃদ্ধি সহ আর হাজারো শারীরিক সমস্যা ঘিরে ধরে।

বাজার চলতি রোগা হওয়ার যাবতীয় দ্রব্য আপনি নিশ্চয় ব্যবহার করে ফেলেছেন? করেছেন ডায়েটও! কিন্তু কোনও সুফলই পাননি। জিম বা ব্যায়াম নিয়মিত করার সময় আপনার হাতে নেই। আর এই সব কারণেই আপনার মতো আরও অনেকের মধ্যে নানা কারণে রোগা হওয়ার চেষ্টাও কমে আসে।

বর্তমান যুগে সবথেকে বেশী প্রাধান্য তাকেই দেওয়া হয়, যিনি একজন সুস্বাস্থ্যের অধিকারী। তাই অতিরিক্ত মোটা হয়ে যাওয়া আমাদের মানসিক দিক থেকেও দুর্বল করে দেয়। এছাড়াও, নানারকম শারীরিক সমস্যা তো আছেই। যেমন, বিভিন্ন ক্রনিক রোগ, বাতের সমস্যা, কোলেস্টেরল বৃদ্ধি পাওয়া ইত্যাদি।

মনে রাখতে হবে যে, ওজন কমানোর জন্য আমাদের মন থেকে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ হতে হবে। সেক্ষেত্রে স্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাস তো বটেই, সেই সঙ্গে নিয়ম নেমে ব্যায়াম, হাঁটা এগুলোও বজায় রাখতে হবে। আর এইসবের সঙ্গে ওজন কমাতে একটি বিশেষ পানীয়ের উপরও ভরসা করতে পারেন। প্রসঙ্গত,
প্রাকৃতিক উপাদান দিয়ে তৈরি এই পানীয়টি একমাসের মধ্যে প্রায় ৬ কিলো ওজন পর্যন্ত কমাতে সক্ষম।

পানীয়টি বানাতে যে যে উপাদানগুলির প্রয়োজন পড়বে:

  • গাজরের রস- এক গ্লাসের অর্ধেক
  • আপেলের শাঁস- এক গ্লাসের অর্ধেক
  • আদার রস- এক চা চামচ

অনেকেই এই পানীয়ের দ্বারা নিজেদের ওজন কমাতে পেরেছেন। এটি প্রতিদিন পান করলে খুব দ্রুত ফল পাওয়া যায়।

যদিও মনে রাখতে হবে যে কোনও পানীয় বা পথ্য খেলেই কিন্তু ম্যাজিকের মতো ওজন কমে যায় না। সেক্ষেত্রে পরিবর্তন আনতে হয় আমাদের জীবনযাত্রাতেও। এই পানীয়টি তখনই কাজ করবে, যখন আমরা আমাদের খাদ্যাভ্যাস বদল আনবো। অর্থাৎ, কম তেলযুক্ত খাবার, ফ্যাট জাতীয় খাবার বাদ দিতে হবে। এছাড়াও নিয়ম মেনে একঘণ্টা ব্যায়াম বাঁ হাঁটার অভ্যাস করতে হবে। এইভাবে নিয়ম মেনে চললে খুব সহজেই ওজন কমানো যাবে। এছাড়াও, ডাক্তারের সঙ্গে পরামর্শ করে জেনে নিতে পারেন আপনার মোটা হওয়া বা ওজন বৃদ্ধির কারণ সম্পর্কে। সেই মতো সেগুলির চিকিৎসাও করালেও সুফল মেলে।

গাজর, আপেল এবং আদা দিয়ে তৈরি এই পানীয়টিতে প্রচুর পরিমাণে শরীর সুস্থ রাখার মতো উপাদান বা যৌগ থাকায় তা খুব তাড়াতাড়ি ওজন কমাতে সাহায্য করে। তাছাড়া এই মিশ্রণটিতে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট আছে, যা আমাদের বিপাক প্রক্রিয়াতে সাহায্য করে এবং ওজন কমায়। সেই সঙ্গে এতে ফাইবার থাকায় শরীর থেকে বাড়তি ফ্যাট বার করে দেয়।

এবার তাহলে জেনে নেওয়া যাক মিশ্রণটি বানানোর পদ্ধতি সম্পর্কে-
১. উপরোক্ত পরিমাণে আপেল, আদা, গাজর এবং কিছুটা জল ব্লেন্ডারে দিতে হবে।
২. সবকটি উপাদান ব্লেন্ডারে দিয়ে ফলের রস বাঁ জ্যুসের মতো তৈরি করতে হবে।
৩. প্রতিদিন সকালে ব্রেকফাস্টের আগে টানা একমাস এটি খেতে হবে। তবেই উপকার মিলবে।

English summary

প্রাকৃতিক উপাদান দিয়ে তৈরি এই পানীয়টি একমাসের মধ্যে প্রায় ৬ কিলো ওজন পর্যন্ত কমাতে সক্ষম।

Have you had enough experience with your constant weight gain that seems to have no solution? Do you feel that you have tried every diet tip out there that promises to help you lose weight?
Story first published: Wednesday, July 12, 2017, 14:47 [IST]
X
Desktop Bottom Promotion