For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

কোভিডের মাঝেই নয়া আতঙ্ক 'মাঙ্কিপক্স', কী এই রোগ? জেনে নিন বিস্তারিত

|

কোভিডের মধ্যেই একের পর এক নতুন নতুন রোগের আবির্ভাব মানব জীবনকে বিপর্যস্ত করে তুলেছে। দেশে এর মধ্যেই নানারকম ছত্রাকের সংক্রমণ দেখা দিচ্ছে। এখন আবার ব্রিটেনে নতুন করে মাথাচাড়া দিচ্ছে 'মাঙ্কিপক্স'।

আসুন জেনে নেওয়া যাক, কী এই মাঙ্কিপক্স, এর উপসর্গ কী এবং এটি কতটা বিপজ্জনক।

মাঙ্কিপক্স কী?

মাঙ্কিপক্স কী?

মাঙ্কিপক্স একটি বিরল জুনোটিক ভাইরাল রোগ, যা অত্যন্ত সংক্রামক। পশ্চিম ও মধ্য আফ্রিকার দেশগুলি এই ভাইরাসের সঙ্গে বেশি পরিচিত। তবে বর্তমানে ব্রিটেনে মাঙ্কিপক্সের ঘটনা পাওয়া গিয়েছে। বিশেষজ্ঞদের মতে, আক্রান্ত পশুদের সংস্পর্শে এলে তবেই মানুষের মধ্যে এই ভাইরাস থাবা বসাতে পারে।

কীভাবে এই রোগ ছড়ায়?

কীভাবে এই রোগ ছড়ায়?

এই ভাইরাসের বাহক হল কাঠবিড়ালি, দুই প্রজাতির ইঁদুর। গুটিবসন্ত যে গোত্রের, মাঙ্কিপক্সও সেই একই গোত্রের ভাইরাস। CDC-এর মতে, মাঙ্কিপক্স চিকিৎসার জন্য বিশেষ কোনও ওষুধ নেই, তবে এর সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ করতে গুটিবসন্তের টিকা সিডোফোভির, এসটি-২৪৬ এবং ভ্যাকসিনিয়া ইমিউন গ্লোবিউলিন ব্যবহার করা যেতে পারে।

এই রোগের লক্ষণ

এই রোগের লক্ষণ

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বা WHO জানিয়েছে, মাঙ্কিপক্স হল ভাইরাসজনিত একটি রোগ, যার লক্ষণ হল ছোট পক্সের মতো। এই রোগে আক্রান্ত ১০০ জন রোগীর মধ্যে ১০ জনের মারা যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

এই ভাইরাসে আক্রান্ত হলে ক্লান্তি ভাব, মাথা ব্যথা, পিঠে ব্যথা, জ্বর, গাঁটে গাঁটে ব্যথা, পেশীতে যন্ত্রণা, শারীরিক দুর্বলতার মতো লক্ষণগুলি দেখা যায়। মাঙ্কিপক্সে আক্রান্ত হওয়ার তিন থেকে পাঁচ দিনের মাথায় গায়ে ব়্যাশ দেখা দেয়, পরে সেগুলি গোটা শরীরে ছড়িয়ে পড়ে। অনেকটা ছোট পক্সের মতো দেখতে লাগে সেগুলি। যতদিন এগোয় সেগুলি বড় হয়ে ফোসকার মতো আকার ধারণ করে। এর জন্য গায়ে চুলকানি ও ব্যথা হয়। সাধারণত, রোগীকে এক থেকে তিন সপ্তাহ এই রোগে ভুগতে দেখা যায়।


আরও পড়ুন : Green Fungus : ব্ল্যাক, হোয়াইট ও ইয়েলো-র পর এবার থাবা বসাল গ্রিন ফাঙ্গাস, জানুন এই রোগ সম্পর্কে বিস্তারিত

English summary

Monkeypox : Causes, Symptoms, Treatment and Prevention in Bengali

Read on to know the Monkeypox Causes, Symptoms, Treatment and Prevention in Bengali.
X