For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

প্রায়ই খাবার নষ্ট হচ্ছে? জেনে নিন খাদ্য অপচয় বন্ধ করার কিছু সহজ উপায়

|

জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থার একটি সমীক্ষা অনুযায়ী, প্রতিবছর প্রায় ১.৩ বিলিয়ন টনেরও বেশি খাদ্যদ্রব্য, বিশ্বব্যাপী অপচয় হয়। আর খাদ্যদ্রব্যের অপচয় মানে, শ্রম, জল এবং অর্থেরও অপচয়। প্রয়োজনের থেকে বেশি খাদ্য সঞ্চয় করা এবং পরে তা অপচয় করা, আজ আমাদের স্বভাব হয়ে দাঁড়িয়েছে। তাই খাদ্যদ্রব্যের অপচয় বন্ধ করা আজ অত্যন্ত জরুরি।

খাবার অপচয়ের ফলে, পরিবেশের ওপরও এর খারাপ প্রভাব পড়ছে। কারণ নষ্ট হওয়া খাবার এখানে সেখানে ফেলে দেওয়া হচ্ছে, সেগুলি পচে গিয়ে মিথেন গ্যাস উৎপন্ন করছে, যা পরিবেশের জন্য ভীষণই ক্ষতিকর। এটি দ্বিতীয় সবচেয়ে সাধারণ গ্রিনহাউস গ্যাস। তাই, আজ থেকে খাবার অপচয় করা বন্ধ করুন। এতে পরিবেশও বাঁচবে এবং আপনি অর্থ সঞ্চয়ও করতে পারবেন। তাহলে দেখে নেওয়া যাক, বাড়িতে খাদ্যের অপচয় বন্ধ করার কিছু টিপস -

১) যতটুকু দরকার ততটুকু রান্না করুন

১) যতটুকু দরকার ততটুকু রান্না করুন

একসাথে অনেক রান্না না করে, যতটুকু দরকার ততটুকু রান্না করুন। এর ফলে খাদ্য অপচয় কম হবে এবং আর্থিক দিক থেকেও আপনি সাশ্রয়ী হতে পারবেন।

৩) এক্সপাইরি ডেট দেখে কিনুন

৩) এক্সপাইরি ডেট দেখে কিনুন

খাবারের মেয়াদ ফুরিয়ে যাওয়ার কারণে আমরা বিভিন্ন খাদ্যদ্রব্য ফেলে দিই, নষ্ট করি। তাই, খাবার যাতে নষ্ট না হয়, সেজন্য গ্রসারি শপিং-এর সময় প্রতিটি প্যাকেটের ওপর লেখা এক্সপাইরি ডেট দেখার অভ্যাস গড়ে তুলুন। প্রত্যেকটি জিনিসেরই একটি নির্দিষ্ট মেয়াদ দেওয়া থাকে। এগুলি লক্ষ্য রাখুন এবং সময় থাকতে ব্যবহার করুন, ফলে অপচয় কম হবে এবং আর্থিক লোকসানও কমবে।

৪) ফল এবং শাকসবজি নষ্ট হওয়ার আগে ব্যবহার করুন

৪) ফল এবং শাকসবজি নষ্ট হওয়ার আগে ব্যবহার করুন

ফল এবং শাকসবজি বেশিদিন ফেলে রাখলে পচে যায়, তাই ঘরে ফেলে না রেখে সেগুলি ব্যবহার করুন। বাড়িতে থাকা ফলগুলি নরম হয়ে গেলে, সেগুলি স্মুদি বা শেক বানিয়ে খেতে পারেন। এছাড়াও, রুপচর্চার কাজেও ব্যবহার করতে পারেন। আর সবজি যদি তার সতেজ ভাব হারাতে থাকে, তাহলে সেগুলি স্যুপ বানিয়ে খেতে পারেন।

৫) ফ্রিজের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখুন

৫) ফ্রিজের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখুন

আজকালকার দিনে বেশিরভাগ খাদ্যদ্রব্যই আমরা ফ্রিজে রাখি, যাতে জিনিসগুলো ভালো থাকে। তাই ফ্রিজের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ করা অত্যন্ত জরুরি। খাদ্যদ্রব্যকে ফ্রেশ রাখার জন্য ১°- ৫° সেলসিয়াস হল আদর্শ তাপমাত্রা। ফ্রিজের তাপমাত্রা বেশি বেড়ে গেলে অনেক সময়ই খাদ্য নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

৬) তালিকা অনুযায়ী কিনুন

৬) তালিকা অনুযায়ী কিনুন

বাজারে গেলে অনেক সময়ই বিভিন্ন সরঞ্জাম দেখে আমাদের মন বিচলিত হয় এবং আমরা প্রয়োজনের তুলনায় অনেক বেশি খাদ্যদ্রব্য ক্রয় করে ফেলি। এর ফলে শুধুমাত্র যে খাদ্যদ্রব্য অপচয় হওয়ার সম্ভাবনা বৃদ্ধি পায় তাই নয়, পাশাপাশি অর্থও অপচয় হয়। তাই বাজারে যাওয়ার আগে, প্রয়োজনীয় খাদ্যদ্রব্যের একটি তালিকা বানিয়ে নিন এবং সেই তালিকা অনুযায়ী খাদ্যদ্রব্য ক্রয় করুন। তার থেকে বেশি কিছু কিনবেন না।

৭) সঠিকভাবে স্টোর করে রাখুন

৭) সঠিকভাবে স্টোর করে রাখুন

খাবার সঠিক জায়গায় স্টোর করুন, যা আপনার খাদ্যদ্রব্যকে দীর্ঘদিন পর্যন্ত ভালো রাখতে সহায়তা করবে, যেমন - পেঁয়াজ, রসুন, কলা, আলু, আপেল, এগুলি ঘরোয়া তাপমাত্রায় সবচেয়ে ভালো স্টোর করা যায়।

৮) পুরোনো খাবারগুলি আগে শেষ করুন

৮) পুরোনো খাবারগুলি আগে শেষ করুন

মুদিখানা কেনাকাটা হয়ে গেলে সেগুলি ঠিকভাবে সাজান। গ্রসারি আইটেম হোক কিংবা অন্যান্য খাদ্যদ্রব্য, সর্বদা পুরোনো খাবারগুলি আগে শেষ করবেন, তারপর নতুন খাবারগুলিতে হাত দেবেন। এর ফলে খাদ্যদ্রব্যের মেয়াদ শেষ হওয়ার সম্ভাবনা অনেকটাই কমবে, খাবার নষ্টও হবে না এবং খাদ্যের অপচয়ও কম হবে। সেরকমই, সদ্য কিনে আনা মুদিখানার জিনিসগুলি স্টোর করার সময়, পুরোনো মুদির জিনিসগুলি সামনের দিকে রাখুন এবং নতুন যেগুলি কিনে এনেছেন সেগুলি পেছনের দিকে রাখুন।

English summary

Easy Ways To Reduce Food Waste And Save Money

We have listed out several easy and quick tips in this article that can help you reduce and eventually prevent the 'habit' of wasting food.
Story first published: Tuesday, June 8, 2021, 10:30 [IST]
X