For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

কোভিড রিপোর্ট নেগেটিভ? তারপরেও এই লক্ষণগুলি দেখা দিলে সাবধান হন!

|

করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দ্রুত বেড়েই চলেছে। যতদিন দিন যাচ্ছে ততই নতুন নতুন রুপে হাজির হচ্ছে এই মারণ ভাইরাস। এমনটাও শোনা যাচ্ছে যে, শরীরে করোনা লক্ষণ থাকার পরেও টেস্ট রেজাল্ট নেগেটিভ আসছে। কোনও ব্যক্তি করোনা সংক্রমিত কিনা সেটা জানার জন্য দুই ধরণের পরীক্ষা করা হয়, RT-PCR এবং অ্যান্টিজেন টেস্ট। তাহলে জেনে নিন, করোনার সমস্ত লক্ষণ দেখা দেওয়ার পরেও কেন নেগেটিভ রিপোর্ট আসে এবং যদি লক্ষণ থাকার পরেও রিপোর্ট নেগেটিভ আসে তাহলে কী করা উচিত।

করোনা টেস্ট কীভাবে করা হয়?

করোনা টেস্ট কীভাবে করা হয়?

করোনা আক্রন্ত কিনা, তা নির্ধারণের সঠিক পরীক্ষা হল RT-PCR। এই টেস্টে নাক বা গলা থেকে সোয়াব নেওয়া হয়। RT-PCR টেস্ট থেকে জানা যায় যে, কোনও ব্যক্তি করোনার ভাইরাসে আক্রান্ত কিনা।

আরও পড়ুন :ডবল-এর পর এবার দেখা মিলল করোনার ট্রিপল মিউটেশন, জানুন এর সম্পর্কে বিস্তারিত

লক্ষণ থাকার পরেও রিপোর্ট নেগেটিভ আসার কারণ

লক্ষণ থাকার পরেও রিপোর্ট নেগেটিভ আসার কারণ

সাধারণত নাক এবং গলা থেকে স্যাম্পল গ্রহণ করা হয়। সোয়াব নেওয়ার সময় কোনও সমস্যা, ভুলভাবে সোয়াব নেওয়া বা ভাইরাস সক্রিয় থাকার তরল পদার্থের মাত্রা কম হওয়ার কারণে রিপোর্ট নেগেটিভ আসতে পারে। কখনও কখনও রোগীর শরীরে ভাইরাল লোড খুব কম হয়, তাই লক্ষণ থাকা সত্ত্বেও নেগেটিভ রিপোর্ট আসে।

কোভিড পরীক্ষার আগে জল পান করা বা কিছু খাওয়া, আরটি-পিসিআর টেস্টের রেজাল্টকে প্রভাবিত করতে পারে।

লক্ষণ থাকার পরেও রিপোর্ট নেগেটিভ আসলে কী করবেন?

লক্ষণ থাকার পরেও রিপোর্ট নেগেটিভ আসলে কী করবেন?

আরটি-পিসিআর রেজাল্ট নেগেটিভ হওয়ার পরেও যদি সমস্ত লক্ষণ থাকে, তাহলে রোগীকে ৫-৬ দিন পরে আবার টেস্ট করানো উচিত। যদি লক্ষণ থাকার পরেও টেস্ট নেগেটিভ আসে, তবে ডাক্তারের সঙ্গে পরামর্শ করে চিকিৎসা শুরু করুন।

লং কোভিড কী?

লং কোভিড কী?

কোভিড-১৯ এর হালকা লক্ষণ যুক্ত রোগীরা ১-২ সপ্তাহের মধ্যে ঠিক হয়ে যায়। সিরিয়াস লক্ষণ যুক্ত রোগীদের সুস্থ হতে ৬-৭ সপ্তাহ সময় লাগে। কোভিড থেকে সুস্থ হয়ে ওঠার পরে রোগীর রিপোর্ট নেগেটিভ আসার পরেও যদি হালকা কাশি, মাথা ব্যথা, গা-হাত-পায়ে ব্যথা, শ্বাসকষ্ট হয়, তখন এটিকে লং কোভিড বলে।

আরও পড়ুন :Coronavirus : করোনার এই পাঁচ ভয়ঙ্কর লক্ষণ থেকে সাবধান! দেখা দিলেই অবিলম্বে যান হাসপাতালে

লং কোভিডের এই লক্ষণগুলি উপেক্ষা করবেন না

লং কোভিডের এই লক্ষণগুলি উপেক্ষা করবেন না

স্বাদ ও গন্ধ না পাওয়া

এটি কোভিড পজিটিভ রোগীর অন্যতম লক্ষণ। অনেকের করোনা রোগীর মধ্যেই স্বাদ ও গন্ধ না থাকার সমস্যা দেখা যায়। তবে নেগেটিভ রিপোর্ট আসার পরেও এই লক্ষণ থাকলে, ডাক্তারের পরামর্শ নিন।

জ্বর ও ঠান্ডা লাগা

কোভিডের খুবই সাধারণ একটি উপসর্গ হল জ্বর। সুস্থ হওয়ার পরেও এই সমস্যা দেখা দিলে, তা উপেক্ষা করবেন না।

খিদে না পাওয়া

সুস্থ হয়ে ওঠার পরেও অনেক রোগীর স্বাদ গ্রহণের ক্ষমতা ফেরে না, যার কারণে তারা ক্ষুধা বোধ করে না এবং খাওয়ার ইচ্ছে জাগে না।

শ্বাসকষ্ট

করোনা ভাইরাসের সিরিয়াস লক্ষণগুলির মধ্যে অন্যতম শ্বাসকষ্ট। করোনা থেকে সুস্থ হওয়ার পরেও এই সমস্যাটি অব্যাহত থাকে। অনেক রোগীর মধ্যেই শ্বাস নেওয়ার সমস্যা থেকে যায়। তাই, এই সমস্যা থেকে বাঁচতে ব্রিদিং এক্সারসাইজ করুন।

ক্লান্তি ও মাথা ব্যথা

করোনার ভাইরাস সংক্রমণের সময় মাথাব্যথা এবং ক্লান্তি থাকে। তবে, অনেক সময় করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ আসার পরেও বেশ কয়েক সপ্তাহ ধরে রোগীর মাথা ব্যথা এবং ক্লান্তি বোধ হয়। তবে অতিরিক্ত মাথাব্যথা বা ক্লান্তি অনুভব হলে ডাক্তারের পরামর্শ গ্রহণ করুন।

ক্রমাগত কাশি-সর্দি

সুস্থ হওয়ার পরেও সর্দি-কাশি থাকে। কোভিড রিপোর্ট নেগেটিভ আসার পরে যদি অনেক দিন ধরে কাশি হতেই থাকে, তবে আপনি লং কোভিডের শিকার হতে পারেন অর্থাৎ শরীরে ভাইরাসের প্রভাব রয়েছে। তবে ভুলেও এটি উপেক্ষা করবেন না।

English summary

Coronavirus symptoms in COVID negative person : Never ignore these symptoms even if you have tested negative

Coronavirus symptoms in COVID negative person: Do not ingone these symptoms even if your testsed negative for covid-19. Read on.
X