For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

কলার খোসা ব্যবহারেই উধাও হবে ব্রণ ও ব্রণর দাগ! দেখে নিন কী ভাবে কাজে লাগাবেন

|

ব্রণর সমস্যায় ভুক্তভোগী কম-বেশি অনেকেই। মহিলাদের মধ্যে বেশিরভাগ ব্রণর সমস্যা দেখা যায়, তবে পুরুষরাও কিন্তু এই সমস্যার বাইরে নন। তৈলাক্ত ত্বকে ব্রণ হওয়ার প্রবণতা সবচেয়ে বেশি থাকে। আবার ব্রণ কিংবা অ্যাকনের কারণে ত্বকে নানারকম দাগছোপও দেখা যায়।

ব্রণ ও ব্রণর দাগছোপ কমাতে চেষ্টার খামতি রাখেন না কেউই। বাজারচলতি বিভিন্ন প্রসাধনী ব্যবহার করা ছাড়াও, ঘরোয়া উপায়েও ত্বকের যত্ন নেন। কিন্তু তাতেও অনেক সময় সুফল মেলে না। তবে কলার খোসা ব্যবহারে দূর হতে পারে এই সব সমস্যা। দেখে নিন কী করবেন -

কলার খোসা ত্বকে ঘষুন

কলার খোসা ত্বকে ঘষুন

ফেসওয়াশ বা ক্লিনজার দিয়ে মুখ ধুয়ে মুছে নিন। ১০ মিনিট ধরে কলার খোসার ভিতরের সাদা অংশটা দিয়ে মুখে ঘষুন ভাল করে। এর পর ২০ মিনিট রেখে জল দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন।

কলার খোসায় ফ্যাটি অ্যাসিড, অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট বৈশিষ্ট্য রয়েছে। এটি ত্বক ভাল রাখে, লালচে ভাব কমায়, এবং ব্রণ থেকে মুক্তি দেয়।

ওটস এবং কলার খোসা

ওটস এবং কলার খোসা

একটা কলার খোসা, হাফ কাপ ওটস, তিন টেবিল চামচ চিনি একসঙ্গে ব্লেন্ড করুন। একেবারে মসৃণ পেস্ট তৈরি করবেন। এই মিশ্রণটি মুখে লাগিয়ে বৃত্তাকার গতিতে ত্বকে ম্যাসাজ করুন কিছু ক্ষণ। তারপর মুখ ধুয়ে মুছে নিন। অয়েল ফ্রি ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নেবেন।

এই প্যাকটি ত্বকে পুষ্টি জোগায় এবং ব্রণ থেকেও মুক্তি দেয়। স্ক্রাব করার সময় খুব জোরে জোরে ঘষবেন না, আলতো করে ঘষুন।

লেবুর রস এবং কলার খোসা

লেবুর রস এবং কলার খোসা

এক টেবিল চামচ কলার খোসার পেস্ট, এক টেবিল চামচ লেবুর রস একসঙ্গে মিশিয়ে নিন। তুলো দিয়ে ব্রণর জায়গাগুলিতে এই পেস্টটি লাগান। ১৫ মিনিট পর মুখ ধুয়ে ফেলুন।

লেবু ব্রণ-সৃষ্টিকারী ব্যাকটেরিয়াকে মেরে ফেলে এবং ত্বক থেকে ব্রণের দাগও দূর করে।

বেকিং পাউডার এবং কলার খোসা

বেকিং পাউডার এবং কলার খোসা

এক টেবিল চামচ কলার খোসার পেস্ট, হাফ টেবিল চামচ বেকিং পাউডার একসঙ্গে মেশান ভাল করে। ব্রণর জায়গায় পেস্টটি লাগান। দুই মিনিট পর মুখ ধুয়ে মুছে নিন। তারপর অয়েল ফ্রি ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নেবেন। এই প্যাক ত্বক থেকে টক্সিন দূর করে, ব্রণ সারায় এবং লালচে ভাবও কমায়।

আরও পড়ুন :কলার খোসা ফেলে দেন? এবার থেকে রূপচর্চায় কাজে লাগান, দাগ-ছোপ ও ব্রণের সমস্যা নিমেষেই দূর হবে!

হলুদ এবং কলার খোসা

হলুদ এবং কলার খোসা

এক টেবিল চামচ হলুদ, এক টেবিল চামচ কলার খোসার পেস্ট মিশিয়ে মুখে লাগান। ১৫ মিনিট আলতো করে ম্যাসাজ করুন। তারপর মুখ ধুয়ে মুছে নিন। অয়েল ফ্রি ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নেবেন। এই প্যাক ত্বকে উপস্থিত ব্রণ-সৃষ্টিকারী ব্যাকটেরিয়া মেরে ফেলে এবং ব্রণ থেকে মুক্তি দেয়।

অ্যাপেল সাইডার ভিনেগার এবং কলার খোসা

অ্যাপেল সাইডার ভিনেগার এবং কলার খোসা

এক টেবিল চামচ কলার খোসার পেস্ট, দুই চা চামচ অ্যাপেল সাইডার ভিনেগার এবং এক চা চামচ জল মিশিয়ে ব্রণর জায়গায় লাগান। ১০ মিনিট পর মুধ ধুয়ে অয়েল ফ্রি ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিন।

এই মিশ্রণটি ত্বকে সিবামের উৎপাদন নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে। ব্রণ-সৃষ্টিকারী ব্যাকটেরিয়াও মেরে ফেলে।

মধু এবং কলার খোসা

মধু এবং কলার খোসা

হাফ টেবিল চামচ মধু, এক টেবিল চামচ কলার খোসার পেস্ট একসঙ্গে মিশিয়ে ব্রণর জায়গায় লাগিয়ে নিন। ১৫ মিনিট পর মুধ ধুয়ে অয়েল ফ্রি ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নেবেন। এই প্যাকটি ত্বককে ময়েশ্চারাইজ করে এবং ব্রণর দাগ হালকা করে।

English summary

Simple Ways To Use Banana Peel To Treat Acne

In this article, we have listed the 7 best ways to use banana peel to heal acne. Read on.
Story first published: Monday, July 18, 2022, 19:13 [IST]
X
Desktop Bottom Promotion