রাশি অনুসারে আপনার কোন দেবতার পূজা করা উচিৎ

By: ANINDITA SINHA
Subscribe to Boldsky

হিন্দুধর্মের অন্যতম পবিত্র শাস্ত্র অগ্নি পুরাণে বলা হয়েছে, "জ্যোতিষশাস্ত্র কেবল মাত্র একটি বিশ্বাস নয়, এটি একটি সু-পরিভাষিত বিজ্ঞান"। তাছাড়া, জ্যোতিষশাস্ত্রের ব্যবহারে একজন ব্যক্তির বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে পুঙ্খানুপুঙ্খ বুঝতে পারা যায়।

হিন্দুধর্ম ভারতের মুখ্য ধর্ম এবং এটা তিনটি প্রধান ঐতিহ্যের সমন্বয়ে গঠিত - বৈষ্ণব (বিষ্ণুর উপাসক), শৈব ধর্ম (শিবের উপাসক) এবং শাক্ত (শক্তির উপাসক)।

হিন্দু শাস্ত্র অনুযায়ী, মানুষেরা বিশ্বাস করে, তেত্রিশ কোটি ভারতীয় দেব-দেবী রয়েছেন। এই দেব-দেবীরা বিষ্ণু, শিব ও শক্তির অবতার।

তাছাড়া, আমরা সেই দেবতার পূজা করে থাকি যার সাথে আমরা মনের সংযোগ অনুভব করে থাকি।

কখনো কখনো আপনি হয়তো খুব অবাক হয়ে যান, যে কেন আপনি সেই নির্দিষ্ট দেবতার প্রতি আকৃষ্ট হয়ে পড়েন এবং আপনি তাদের প্রতি এক অলীক আকর্ষণ অনুভব করেন।

অগ্নি পুরাণ অনুযায়ী, বিশ্বাস করা হয় যে আপনার রাশি অনুযায়ী আপনাকে ঈশ্বরের পবিত্র উপাসনা করা উচিৎ।

যখন আপনি আপনার রাশি অনুযায়ী একজন নির্দিষ্ট দেবতার পূজা করেন, এটা আপনার স্বর্গীয় শক্তিকে উদ্দীপিত করতে সাহায্য করে ও আপনার গ্রহের প্রভাবের গতিকে শান্ত করতে, সেই দেবতাকে প্রভাবিত করে।

অগ্নি পুরাণ এও বলে যে, আপনি যদি আপনার রাশি জেনে থাকেন তবে আপনি, আপনার শাসক গ্রহ ও যে নির্দিষ্ট দেবতা ঐ গ্রহকে শাসন করছেন তাঁকেও নিজের প্রার্থনা জানাতে পারবেন।

কখনো কখনো আপনার কঠোর পরিশ্রম ও প্রতিবদ্ধতার পরেও, জীবনে যে সফলতা আপনার প্রাপ্য তা আপনি পান না।

হিন্দু শাস্ত্র অনুযায়ী, নিজের জন্ম তারিখ ও রাশি জেনে, আপনি সেই নির্দিষ্ট দেবতা যিনি ঐ গ্রহটি শাসন করছেন তাঁর পূজা করে, জীবনে আপনার যা প্রাপ্য তা সহজেই অর্জন করতে পারেন।

এখন আপনি যদি না জেনে থাকেন, রাশি অনুযায়ী আপনার কোন দেবতাকে পূজা করা উচিৎ, তবে নিম্নোলিখিত বিষয়গুলি পড়ুন, এগুলি আপনাকে এই বিষয়ে একটা স্বচ্ছ ধারনা দেবে।

মেষ রাশির জন্য

মেষ রাশির শাসক গ্রহ মঙ্গল। মঙ্গল গ্রহের শক্তিবৃদ্ধি করতে মেষ রাশির জাতক-জাতিকাদের ভগবান শিবের আরাধনা করা উচিৎ।

মিথুন রাশির জন্য

মিথুনের শাসক গ্রহ বুধ। বুধের শাসক হলেন, ভগবান "শ্রীমননারায়ণ", আর তাই মিথুন রাশির জাতক-জাতিকাদের দ্রুত উপকার ও তাদের জীবনে সৌভাগ্য পেতে ভগবান শ্রীমননারায়ণের পূজা করা উচিৎ।

সিংহ রাশির জন্য

সিংহ রাশির শাসক গ্রহ সূর্য ও এই গ্রহের জন্য শাসক দেবতা হলেন, ভগবান শিব। ভগবান শিবকে তুষ্ট করা খুবই সহজ; তাই সমগ্র সিংহ রাশির জাতক-জাতিকাদের, নিজেদের উন্নয়নের জন্য ভগবান শিবের পবিত্র মন্ত্রোচ্চারণের মাধ্যমে তাঁর পূজা করা উচিৎ।

তুলা রাশির জন্য

আপনার রাশি যদি তুলা হয় তবে এটির শাসক শুক্র এবং এই গ্রহের শাসক দেবতা দেবী লক্ষ্মী। তাই দেবী লক্ষ্মীর উপাসনার মাধ্যমে আপনি সৌভাগ্য ও সম্পদ অর্জন করতে পারবেন।

বৃষ রাশির জন্য

বৃষ রাশিও শুক্র গ্রহ দ্বারা শাসিত আর তাই সকল বৃষ রাশির জাতক-জাতিকাদের সৌভাগ্য, ইতিবাচক শক্তি ও সমৃদ্ধির জন্য দেবী লক্ষ্মীর আরাধনা করা উচিৎ।

বৃশ্চিক রাশির জন্য

মঙ্গল গ্রহ এই রাশিকে শাসন করে আর তাই মঙ্গল গ্রহকে শক্তিশালী করার জন্য সকল বৃশ্চিক রাশির জাতককে ভগবান শিবের উপাসনা করা উচিৎ।

কর্কট রাশির জন্য

চন্দ্র, কর্কট রাশির শাসক গ্রহ। দেবী গৌরী চন্দ্রের শাসক। দেবী গৌরী শান্তি ও অনুকম্পার প্রতিমূর্তি, তাই আপনি যদি কর্কট রাশির জাতক হন তবে, আপনার ইচ্ছা পূরণের জন্য আপনাকে পরম নিষ্ঠার সাথে দেবী গৌরীর আরাধনা করতে হবে।

কুম্ভ রাশির জন্য

এই রাশিটিকে মঙ্গল গ্রহ শাসন করে। মঙ্গল গ্রহের মুখ্য শাসক দেবতা ভগবান শিব। তাই, আপনি যদি মঙ্গল গ্রহের অধীনে জন্মগ্রহণ করে থাকেন, তবে আপনাকে প্রতিদিন পবিত্র মনে ও আত্মোৎসর্গের সাথে ভগবান শিবের মন্ত্রোচ্চারণের মাধ্যমে তার উপাসনা করতে হবে।

কন্যা রাশির জন্য

এই রাশির জন্য শাসক গ্রহ বুধ। ভগবান বিষ্ণুর অবতার ভগবান শ্রীমননারায়ণ বুধ গ্রহের শাসক দেবতা এবং কন্যা রাশির অন্তর্ভুক্ত সকল ব্যক্তিকে দ্রুত লাভ ও সৌভাগ্যের জন্য ভগবান শ্রীমননারায়ণের পূজা করা উচিৎ।

ধনু রাশির জন্য

ধনু রাশির শাসক গ্রহ বৃহস্পতি। বৃহস্পতির শাসক দেবতা "শ্রী দক্ষিণামূর্তি"। ভগবান শিবের অবতার শ্রী দক্ষিণামূর্তি, জ্ঞান ও বুদ্ধিমত্তার গুরু। তাই, আপনি যদি এই রাশির অধীনে জন্মগ্রহণ করে থাকেন, তবে কার্যকর ফল পেতে আপনাকে ভগবান শ্রী দক্ষিণামূর্তির পূজা করতে হবে।

মীন রাশির জন্য

মীন রাশিও বৃহস্পতি গ্রহ দ্বারা শাসিত। ভাল ফল পেতে সকল মীন রাশির জাতক-জাতিকাকে শ্রী দক্ষিণামূর্তির উপাসনা করা প্রয়োজন।

মকর রাশির জন্য

মঙ্গল গ্রহ, মকর রাশির শাসক। ভগবান শিব এই গ্রহের শাসক দেবতা, তাই সকল মকর রাশির জাতক-জাতিকার ভগবান শিবের পূজা করা উচিৎ।

English summary
The Agni Purana, which is one of the most holiest scriptures of Hinduism, states that, "Astrology is not only a belief but it is a well-defined Science."
Please Wait while comments are loading...