লাজুক ছেলেমেয়েদের বড় করতে ৭ টি টিপস

By: Nayan Munshi
Subscribe to Boldsky

একমাত্র বাবা-মায়েরাই বোঝেন ছেলে-মেয়েদের বড় করা কত কঠিন কাজ। আর বাচ্চা যদি লাজুক প্রকৃতির হয় তাহলে তো এই কাজটা আরও কঠিন হয়ে যায়। তাই বলে মাথায় হাত দিয়ে বসছেন কেন! চিন্তার কোনও কারণ নেই। এই প্রবন্ধে উল্লেখিত গাইড লাইনগুলি মেনে চললেই দেখবেন সমস্য়া কেমন দূরে পালাচ্ছে।

লাজুক বলতে আসলে কী বোঝায়? লাজুক বা অন্তর্মুখী হওয়া কোনও চারিত্রিক দোষ নয়। বরং এটা এক ধরনের ব্যক্তিত্ব। আর এমন চরিত্রের মানুষেরা সামাজিক হতে চান না। পরিবর্তে নিজেদের সঙ্গে সময় কাটাতেই বেশি পছন্দ করেন। সহজ কথায় বললে, নিজ চিন্তার মধ্য়েই এরা এদের সঙ্গী খুঁজে পান। ফলে একাকিত্ব দূর করতে আর কাউকে প্রয়োজনই হয় না এদের। তাই বলে লাজুক মানুষদের যে একবারেই কোনও বন্ধু হয় না, এমন নয়। তবে সংখ্য়াটা হয় খুব হাতে গোনা।

এবার তাহলে চোখ রাখা যাক সেইসব গাইড লাইনগুলির উপর যেগুলি মেনে চললে লাজুক সত্নানদের বড় করে তুলতে বাবা-মায়েদের আর কোনও অসুবিধাই হবে না।

টিপ ১:

বাবা-মা হিসাবে প্রথমেই আপনাদের বুঝতে হবে যে লাজুক হওয়াটা কোনও অস্বাভাবিক বিষয় নয়। বাকি বাচ্চাদের মতো আপনার বাচ্চাও একদম স্বাভাবিক। তাই সে কথা কম বলছে বলে আকারণ চিন্তা করবেন না।

টিপ ২:

কেউ ইচ্ছা করে লাজুক হয় না। এটা আপনার বাচ্চার চারিত্রিক বৈশিষ্ট। তাই চিকিৎসার মাধ্য়মে স্বভাবের পরিবর্তন করা সম্ভব, এমনটা ভেবে নেবেন না। কারণ এটা করা একেবারেই সম্ভব নয়।

টিপ ৩:

জোর করে বাচ্চাকে সামাজিক হতে বাধ্য় করবেন না। এমনটা করলে আপনার বাচ্চা হয়তো ভাবতে পারে যে সে স্বাভাবিক নয়। আর এমন ভাবনা মোটেই ভালো নয়।

টিপ ৪:

বাড়িতে কোনও অনুষ্টানের আয়োজন করার আগে আপনার বাচ্চাকে সেটা বলবেন, যাতে সে প্রস্তুতি নেওয়ার কিছুটা সময় পায়। একথা ভুলে গেলে চলবে না যে লাজুক স্বভাব যাদের, তাদের সামাজিক হতে একটু সময় লাগে।

টিপ ৫:

যখন দেখবেন আপনার বাচ্চা সামাজিক হতে চাইছে না, তখন তাকে জোর করবেন না। এমনটা করলে হয়তো আগামী দিনে আপনার বাচ্চা নিজে থেকেই লোকের সঙ্গে মিশতে চাইবে।

টিপ ৬:

যখন দেখবেন আপনার বাচ্চা কষ্ট হওয়া সত্ত্বেও লোকের সঙ্গে মিশতে চাইছে, তখন তাকে অভিবাদন জানাবেন। এতে তাদের মনের জোর বাড়বে।

টিপ ৭:

যদি দেখেন অন্য় বাচ্চারা আপনার ছেলে-মেয়েকে বিরক্ত করছে তাহলে তাদের প্রতিবাদ করা শেখাবেন। এমনটা করলে তাদের মনের জোর বাড়বে, যা জীবনে এগিয়ে যেতে তাদের সাহায্য় করবে।

English summary
Surely, whether we are parents yet or not, most of us would already know that parenting is not an easy job, especially if your child is slightly different from the others. Did you know that there are a few tips that can help you raise an introverted child in a better way?
Please Wait while comments are loading...