অন লাইনে এই কাজগুলি করা বেআইনি!

Posted By:
Subscribe to Boldsky

অন লাইনে এই কাজগুলি করা বেআইনি!

ইন্টারনেট সম্পর্কিত আইনগুলি বড়ই গোলমেলে। কিছুতেই বোঝা যায় না! এমনটা কেন হবে না বলুন, আইনগুলি যে প্রতিনয়ত বদলে যাচ্ছে। আর আমাদের তো আর আইনের বিদ্য়ে নেই, তাই লেজে গোবরে অবস্থা আর কী!

গান ডাউনলোড করা থেকে শুরু করে টরেন্ট বা ওই জাতীয় কোনও সাইট থেকে লেটেস্ট হিন্দি বা বাংলা সিনেমা ডাউনলোড, সবই কিন্তু বেআইনি। তবু আমরা করে চলেছি এইসব, আইনের চোখে ধুলো দিয়ে।

চলুন এবার চোখ রাখা যাক সেইসব কাজগুলির দিকে, যা ইন্টারনেটে করা একেবারেই আইন বিরুদ্ধ। তবে এক্ষেত্রে একটা বিষয় বলে রাখা দরকার যে সব সময়ই যে আমরা জেনে বুঝেই এই ভুলগুলি করে থাকি এমন নয় যদিও। তাই তো আপনাদের সকলের এই প্রবন্ধটা পড়া জরুরি। কারণ এতে সেই সব কাজগুলির প্রসঙ্গে আলোচনা করা হল যেগুলি ইন্টারনেটে বিচরণ করার সময় এড়িয়ে যাওয়াই শ্রেয়।

সিনেমা এবং গান ডাউনলোড:

সিনেমা এবং গান ডাউনলোড:

যেমনটা আগেও বলেছি বিভিন্ন সাইট থেকে গান বা সিনেমা ডাউনলোড করা কিন্তু সম্পূর্ণ বেআইনি। সেই কারণেই তো অনেক দেশ ইতিমধ্য়েই টরেন্ট সাইটটি নিষিদ্ধ করে দিয়েছে। তবু যেন থামতে চাইছে না এই নিষিদ্ধ কাজ। এ বিষয়ে তাই আমাদের সকলেরই অতিরিক্ত সচেতন হওয়াটা জরুরি।

গাড়ি চালানোর সময় মেসেজ করবেন না:

গাড়ি চালানোর সময় মেসেজ করবেন না:

এটা যে খারাপ অভ্য়াস, সেটা আমাদের সকলেরই জানা। তবু যেন ছাড়তে ইচ্ছা করে না। একথা আমরা ভুলে যাই যে কোনও পরিবহণ, তা গাড়ি হোক কী বাইক বা সাইকেল, চালানোর সময় মোবাইলে কথা বললে বা টেক্সট করলে মারাত্মক বিপদের আশঙ্কা থাকে। তাই তো বলতে দুঃখ হয়, কবে যে আমাদের এই বিষয়ে জ্ঞান হবে তা ভগবানই জানেন।

বিজ্ঞাপনকে আটকে দেওয়া:

বিজ্ঞাপনকে আটকে দেওয়া:

ইন্টারনেটে ঝড় তোলা বেশিরভাগ সাইটই বিজ্ঞাপনের মাধ্য়মে পয়সা উপার্জন করে থাকে। তাই ইন্টারনেট ব্য়বহারের সময় অ্যাড ব্লকার ব্য়বহার করা একেবারেই উচিত নয়। এটা কিন্তু বেআইনি কাজ।

কোনও সাইটে কিছু বিক্রি করে তা আয়ের অংশ হিসাবে না দেখানো:

কোনও সাইটে কিছু বিক্রি করে তা আয়ের অংশ হিসাবে না দেখানো:

আজকাল অনেক সাইটেই পুরানো জিনিস পত্র বিক্রি করা যায়। আর একাজ আমরা অনেকেই করে থাকি। কিন্তু কজন এই সব বিক্রি থেকে উপার্জিত অর্থ নিজের আয়ের অংশ হিসাবে দেখান? হিসাব করলে সংখ্য়াটা যে খুব বেশি হবে না, তা বলার অপেক্ষা রাখে না। তবে অনেকেরই এই বিষয়টা মাথায় থাকে না যে এই অল্প পরিমাণ আয়ও দেখানো জরুরি। তাই আপনাদের জানিয়ে রাখি। এইভাবে নিজের আয়ের অংশ হিসাবে এমন উপার্জনকে না দেখানো বাস্তবিকই বেআইনি কাজ।

নকল আই পি অ্যাড্রেস ব্য়বহার করা:

নকল আই পি অ্যাড্রেস ব্য়বহার করা:

নিজেকে মুখোশের আড়ালে রেখে দিতে অনেকেই নকল পরিচয়, এমনকী নকল আই পি অ্যাড্রেস ব্য়বহার করে থাকেন। অনেক আবার বেআইনি কাজ করার জন্য়ও এমনটা করে থাকেন। যারা এমন করে তাদের জানিয়ে রাখি, এই ধরনের কাজ কিন্তু বেআইনি। তাই এবার থেকে নকল আই পি অ্যাড্রেস ব্য়বহারের আগে একবার অন্তত ভেবে দেখবেন, আপনি যে কাজটি করছেন তা ঠিক করছেন কি?

Read more about: জীবন, বিশ্ব
English summary
Internet laws are always quite confusing, since the laws keep constantly changing and we are not lawyers to know each of them.
Please Wait while comments are loading...