মাছের কাঁটা থেকে মৃত্যু?

Subscribe to Boldsky

মাছ খেতে সুস্বাদু এবং পুষ্টিকরও বটে। তাই তো বাঙালির খাবার তালিকায় এটির স্থান একেবারে উপরে দিকে। সবই ঠিক আছে। অসুবিধাটা আসলে অন্য় জায়গায়। মাছের সারা শরীর কাঁটায় ভর্তি। আর একবার যদি সেই কাঁটা গলায় আটকে যায় তাহলে তো আত্মারাম খাঁচা! এসব ক্ষেত্রে কী করণীয়? উপায় আছে বন্ধুরা! তাই চিন্তার কোনও কারণ নেই।

গলায় কাঁটা লাগার আগে এই প্রবন্ধটি পড়ে নিলে কিন্তু আর কোনও কষ্ট হবে না। কারণ এই লেখায় এমন কিছু পদ্ধতি সম্পর্কে আলোচনা করা হল যা নিমেষে গলায় আটকে যাওয়া কাঁটা বার করে দিতে পারে।

তথ্য ১:

এমন ঘটনা ঘটলে ভয় পাবেন না। ভুল করে কাঁটা গিলে ফেলার ঘটনা ঘটতেই পারে। কাঁটা যদি ছোট হয়, তাহলে চিন্তার কোনও কারণ থাকে না। সেটি গলায় না আটকে পেটে চলে যায়। সমস্য়াটা তখনই হয়, যখন কাঁটাটা বেশ বড় হয়। আসলে কাটার মাপ বড় হলে সেটি গলা দিয়ে নামতে পারে না। ফলে গলায় আটকে যায়। আর এমনটা হলেই দেখা দেয় নানা অসুবিধা।

এক্ষেত্রে কী করতে হবে:

কাঁটা যদি গলায় আটকে যায় তাহলে তা বার করতে কারও সাহায্য়ের প্রয়োজন পড়বে। উপরের ছবিতে যেমনভাবে দেখানো হল, সেভাবে পেটের উপরের দিতে দুহাত নিয়ে গিয়ে জোড়ে চেপে ধরুন। আর চাপ দিতে থাকুন। একে বলে অবডোমিনাল থ্রাস্ট। এমনটা করলে গলায় আটকে যাওয়া কাঁটা বেরিয়ে যায়। গলায় খাবার আটকে গেলেও এই পদ্ধতিটি দারুন কাজে আসে।

আরেকটি উপায়:

উপরের পদ্ধতিটি ছাড়াও আরেকটি উপায়ে গলার কাঁটা বার করা যায়। উপরের ছবিতে যেমন দেখানো হল সেভাবে পিঠে হালকা করে মারতে থাকলেও কাঁটা বেরিয়ে যাবে।

হজম হয়ে যাবে:

কাঁটা যদি গিলে ফেলেন তাহলে কী হতে পারে? বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই তা হজম গিয়ে পটির সঙ্গে বেরিয়ে যায়। কিছু সময় কাঁটাটা ইনটেস্টাইনে থেকে গিয়ে কয়েক দিন পরে তা বাইরে বেরিয়ে আসে।

ইনটেস্টাইন:

ধরা যাক গিলে ফেলা কাঁটা হজম হল না। তখন? এইসব ক্ষেত্রে পটির সঙ্গে হজম না হওয়া কাঁটাটা বেরিয়ে আসে। ফলে প্রাকৃতিক কর্ম করার সময় বেজায় যন্ত্রণার সাক্ষি থাকতে হয়। আর যদি ইনটেস্টাইন অথবা স্টমাকে কাঁটা টা আটকে যায়, তাহলে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা শুরু করা ছাড়া কোনও উপায়ই থাকে না।

জল পান জরুরি:

গলার কাঁটা আটকে গেলে কিছু খাবেন না। পরিবর্তে অনেক অনেক জল খেতে থাকুন। এতে চিকিৎসকের পক্ষে কাঁটাটা বার করা সহজ হবে। খাবার খেলে যে জায়গায় কাঁটাটা আটকেছে সে জায়গায় কিছু খাবার জমে যায়, ফলে ডাক্তারের কাজটা কিছুটা হলেও কোঠিন হয়ে যায়।

কাঁটা ছাড়ানোর ঘরোয়া উপায়:

১. এমনটা হলে চোখ বুজে হাফ কাপ সেদ্ধ ভাত না চিবিয়ে গিলে ফেলুন। দেখবেন কাঁটা বেরিয়ে যাবে।

 

 

কাঁটা ছাড়ানোর ঘরোয়া উপায়:

২. কলাও খেতে পারেন। এক্ষেত্রেও চেবানো মানা। পরিবর্তে কলাটা গিলে নিয়ে অল্প করে জল খেয়ে নেবেন। তাহলেই কেল্লাফতে!

কাঁটা ছাড়ানোর ঘরোয়া উপায়:

৩. ২ চামচ মাপের চিনাবাদাম খেয়ে ১ মিনিট ধরে চুষে নিয়ে গিলে ফেলুন। এই পদ্ধতিটিও গলার কাঁটা বার করতে বেশ কার্যকরি।

কাঁটা ছাড়ানোর ঘরোয়া উপায়:

৪.একটা ব্রাউন বেডের টুকরো নিয়ে তাতে মাখন লাগান। এরপর একটা কামড় দিন। কিছুক্ষণ ব্রাউন বেডটা মুখে রেখে গিলে ফেলুন। তারপর অল্প করে জল খান। এমনটা করলেও কাঁটা বেরিয়ে যেতে পারে।

কিছুতেই যদি কাজ না দেয়!

উপরে আলোচিত কোনও পদ্ধতিই যদি কাজে না আসে তাহলে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। বেশি দিন কাঁটা যদি গলায় থেকে যায়, তাহলে তার থেকে সংক্রমণ হয়ে যেতে পারে। তখন অপারেশন করা ছাড়া কোনও উপায়ই থাকে না।

English summary
Fish is tasty and healthy too. But the only problem with it is the sharp bones in it. Generally, any of us would carefully eat the flesh leaving the bones.
Please Wait while comments are loading...