পিৎজা অস্বাস্থ্যকর কেন?

Subscribe to Boldsky

খেতে সুস্বাদু তবে শরীরের পক্ষে একবারেই ভালো নয় এই খাবারটি। কারণ কি জানেন? পিৎজাতে মাত্রাতিরিক্ত পরিমাণে ক্য়ালরি, সোডিয়াম এবং সেচুরেটেড ফ্য়াট থাকে। আর এই উপাদানগুলির সবকটাই নানাভাবে শরীরের ক্ষতি করে।

পিৎজার একটা স্লাইসেই প্রায় ৩০০ ক্য়ালোরি, ১৪ গ্রাম ফ্য়াট বা চর্বি এবং প্রায় ৭০০ এম জি সোডিয়াম বা নুন থাকে। আর এইগুলি খেলে কী হয়? আপনি যদি শরীরিকভাবে চাঙ্গা থাকেন তাহলে মাসে একবার পিৎজা খেলে শরীরের কানও ক্ষতিই হয় না। কিন্তু প্রায় দিনই যদি এই খাবারটি খেতে শুরু করেন, তাহলে কিন্তু বিপদ! শুনলে আবাক হয়ে যাবেন, ধূমপাণ এবং অ্যালকোহল সেবন করলে যে মাত্রায় শরীরের ক্ষতি হয়, পিৎজা খেলেও একই রকম নেতিবাচক প্রভাব পড়া শরীরের উপর। আর কীকী ক্ষতি হতে পারে পিৎজা থেকে।

তথ্য ১:

প্রথমত, জেনে নেওয়া উচিত কী দিয়ে পিৎজা বানানো হয়। এক্ষেত্রে রিফাইন্ড ময়দার প্রয়োজন পরে। আর একথা তো সবারই জানা যে রিফাইন্ড ময়দা শরীরের পক্ষে একেবারেই ভালো নয়। ময়দায় উপস্থিত ভিটামিন, ফাইবার সহ আরও নানা মিনারেলস সব নষ্ট হয়ে যায়, যখন সাধারণ ময়দাকে রিফাইন করা হয়। ফলে এই রিফাইন্ড ময়দাটি খেলে শরীরের কোনও ভালো তো হয়ই না, বরং পেটের মেদ বাড়তে শুরু করে।

তথ্য ২:

পিৎজায় যে চিজ থাকে তা শরীরে কোলেস্টরলের মাত্রা বাড়িয়ে দিয়ে হার্ট অ্যাটাকের আশঙ্কা বাড়িয়ে দেয়। আর যদি আপনি নন-ভেজ পিৎজা খেতে পছন্দ করেন, তাহলে তো বিপদ আরও বেশি।

তথ্য ৩:

শরীরে বাইরে থেকে যত নুন প্রবেশ করবে, তত রক্ত চাপ বাড়বে। আর একথা তো আগেই বলেছি যে পিৎজায় নুনের পরিমাণ খুব বেশি থাকে। তাই কেউ যদি এই খাবারটি প্রায় দিনই খেয়ে থাকেন, তাহলে এখন থেকেই সাবধান হন। না হলে কিন্তু উচ্চ রক্ত চাপের সমস্য়া আপনাকে কাবু করে ফলবে।

তথ্য ৪:

একাধিক গবেষাণায় দেখা গেছে যে যে উপাদানগুলি দিয়ে পিৎজা তৈরি করা হয়, সেগুলি মস্তিষ্কে এমন কিছু পরিবর্তন করে যাতে ওই খাবারের প্রতি একটা আশক্তি তৈরি হয়। ফলে একবার কেউ পিৎজা খাওয়া শুরু করলে বারে বারে তা খেতে ইচ্ছা করে। যেমনটা সিগারেট এবং মদের ক্ষেত্রে হয়ে থাকে। ফলে ওই নির্দিষ্ট খাবারটির প্রতি একটা এডিকশন তৈরি হয়ে যায়।

তথ্য ৫:

পিৎজায় এমন কিছু অ্যাটিটিভস ব্য়বহার করা হয়, যা রক্তে শর্করার মাত্রা বাড়িয়ে দেয়। ফলে নানা ধরনের শারীরিক জটিলতা হওয়ার আশঙ্কা বেড়ে যায়।

তথ্য ৬:

খেতে সুস্বাদু হওয়ার করণে একটা স্লাইস পিৎজা খেয়ে কেউ থেমে যেতে পারেন না। অনেক পরিমাণে খাওয়ার ইচ্ছা যাগে। ফলে ওজন বৃদ্ধি, উচ্চ রক্তচাপ, টাইপ-২ ডায়াবেটিস এবং কার্ডিওভাসকুলার ডিজিজ সহ আরও নানান জটিল রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা বৃদ্ধি পায়।

English summary
Pizza is the best gift to your tongue but a bad substance to your health! The problem with pizza is it contains too many calories, sodium and saturated fat.
Please Wait while comments are loading...