ব্লেড প্রেসার হাই থাকলে এই খাবারগুলি খাওয়া একবারেই চলবে না!

Posted By:
Subscribe to Boldsky

ইংরেজিতে একটা কথা আছে না, "হোয়াট ইউ ইট ইজ হোয়াট ইউ আর"। কথাটি যে সবদিক থেকেই ঠিক, তা বলার অপেক্ষা রাখে না। সত্যিই তো আমরা কতটা সুস্থ থাকবো তা অনেকাংশেই নির্ভর করে আমাদের রোজের ডায়েটের উপরে। আর সেদিকটায় আমরা খেয়াল দিনা বলেই তো গত কয়েক দশকে ব্লাড প্রেসার, সুগার, হার্টের রোগ এবং কোলেস্টেরল সহ নানাবিধ মারণ রোগের প্রসার এতটা বৃদ্ধি পয়েছে।

আজ এই প্রবন্ধে এমন কিছু খাবার সম্পর্কে আলোচনা করা হবে, যা উচ্চ রক্তচাপে ভুগতে থাকা রোগীদের একেবারেই খাওয়া চলবে না। পরিবর্তে খেতে হবে চর্বিহীন প্রোটিন, হোল গ্রেন এবং কম ফ্যাট রয়েছে এমন দুগ্ধজাত খাবার। সেই সঙ্গে নুন খাওয়া একেবারে কমিয়ে ফেলতে হবে। কারণ এমন রোগীদের শরীরে যত নুনের পরিমাণ বাড়বে, তত রক্তচাপও বাড়তে শুরু করবে। তাই সাবধান! আর কী কী খাবার এক্ষেত্রে মুখে তোলা চলবে না?

১. জাঙ্ক ফুড:

১. জাঙ্ক ফুড:

উচ্চ রক্তচাপে ভুগতে থাকা রোগীদের এমন খাবার খাওয়া মানে মৃত্যুর সমান। কারণ এই ধরনের খাবারে নুনের পরিমাণ খুব বেশি থাকে। আর একথা তো সকলেই জানেন যে হাই ব্লাড প্রেসারের রোগীদের নুন খাওয়া একেবারেই চলবে না।

২. আচার:

২. আচার:

আপনার ব্লাড প্রসোর হাই, এদিকে আচার খেতেও ভাল লাগ? তাহলে তো বেশ বিপদ বলতে হয়! কারণ জাঙ্ক ফুডের মতো আচারেও নুনের পরিমাণ খুব বেশি থাকে। আর মাত্রাতিরিক্ত পরিমাণ নুন একজন প্রেসারের রোগীর শরীরে প্রবেশ করা মানে সমস্যা আরও বাড়বে।

৩. ক্যানবন্দি স্যুপ:

৩. ক্যানবন্দি স্যুপ:

বাড়িতে বানানো স্যুপ শরীরের পক্ষে খুব ভাল। কিন্তু টিন বন্দি স্যুপ একেবারেই নয়। কারণ এতে নুন এবং প্রিজারভেটিভের পরিমাণ খুব বেশি থাকে। তাই তো রেডিমেড স্যুপ খেলে শরীরে তো কোনও ভাল হয়ই না, উলটে প্রেসার বেড়ে গিয়ে শরীরের আরও ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা বৃদ্ধি পায়।

৪. টমাটো সস:

৪. টমাটো সস:

হাইপারটেনশের সমস্যায় যারা ভুগছেন, তাদের এই ধরনের খাবার খাওয়া একেবারেই উচিত নয়। কারণ সসেও নুন এবং চিনির পরিমাণ খুব বেশি থাকে, যা প্রেসারের রোগীদের শরীরের পক্ষে একেবারেই ভাল নয়।

৫. কফি:

৫. কফি:

প্রেসারের রোগীদের দিনে ২-৩ কাপের বেশি কফি খাওয়া একেবারেই চলবে না। কারণ কফিতে রয়েছে ক্যাফিন, যা বেশি মাত্রায় শরীরে প্রবেশ করলে রক্তচাপ অস্বাভাবিক হারে বেড়ে যায়। এখন নিশ্চয় বুঝতে পারছেন, হাই প্রেসারের রোগীদের কেন বেশি মাত্রায় কফি খেতে বারণ করে চিকিৎসকেরা।

৬. অ্যালকোহল:

৬. অ্যালকোহল:

এই ধরনের পানীয় খেলে রক্তচাপ খুব বৃদ্ধি পায়। তাই যাদের ব্লাড প্রেসার এমনতিই হাই, তারা যদি এমন পানীয় প্রায় প্রতিদিন খেতে থাকেন, তাহলে হঠাৎ মৃত্য়ুর আশঙ্কা বৃদ্ধি পায়।

৭. পাঁউরুটি:

৭. পাঁউরুটি:

আপাত দৃষ্টিতে ক্ষতিকর মনে না হলেও এই খাবারটি কিন্তু প্রেসারের রোগীদের ক্ষেত্রে বিষের সমান। কারণ এতে রয়েছে প্রচুর মাত্রায় সোডিয়াম, যা হঠাৎ করে রক্তচাপ খুব বাড়িয়ে দেয়। তাই তো ব্লাড প্রসোরের রোগীদের ভুলেই এই খাবারটি মুখে তুলতে মানা করা হয়।

৮. ভাজা খাবার:

৮. ভাজা খাবার:

এই ধরনের খাবারে প্রচুর মাত্রায় নুন থাকে। সেই সঙ্গে থাকে বিপুল পরিমাণে স্যাচুরেটেড ফ্যাট এবং চিনি। এই সবকটি উপাদানই হাইপারটেনশনে ভুগতে থাকা রোগীদের পক্ষে ভাল নয়।

Read more about: খাবার
English summary
What you eat is what you are!! The food that we take has a great role to play in deciding our health status. This is more important if you have an already diagnosed health condition.
Please Wait while comments are loading...