বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস: চটজলদি ওজন কমাতে এই খাবরগুলি খাওয়া জরুরি

Posted By:
Subscribe to Boldsky

পরিসংখ্যান বলছে ২০-৫০ বছর বয়সিদের মধ্যে প্রায় ৬০-৭০ শতাংশই অতিরিক্ত ওজনের সমস্যায় ভুগছেন। আপনিও কি রয়েছেন সেই লিস্টে? তাহলে তো বেশ চিন্তার বিষয়। কেন? আরে ওজন মানেই অতিরিক্ত মেদ। আর মেদ মানেই হাজারো রোগ। তাই তো শুধু সুন্দর জামা-কাপড় পরার স্বপ্ন পূরণের জন্য নয়, সার্বিকভাবে সুস্থ জীবন পেতেও ওজন কমানো জরুরি। আর কীভাবে করবেন এই অসাধ্য সাধন? উত্তর জানা নেই তো? কোনও চিন্তা নেই! বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস বলে কথা, তাই তো এই প্রবন্ধে এমন কিছু খাবারের প্রসঙ্গে আলোচনা করা হল, যা নিয়মিত খেলে ওজন কমতে বাধ্য!

খাবারের প্রসঙ্গে আসার আগে একবার চোখ রাখা যাক ওজন বাড়ার নানা কারণের দিকে। এক্ষেত্রে অস্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া, শরীরচর্চা না করা, হরমেনাল ইমব্যালেন্স, জিনগত কারণ প্রভৃতি নানা বিষয় দায়ি হতে পারে। এর মধ্যে কোন ভুল কাজটা আপনি করেন?

এমন কিছু সবজি আছে, যা মাত্রাতিরিক্ত পরিমাণে ক্যালোরি বার্ন করার মাধ্যমে ওজন কমাতে বিশেষ ভাবে সাহায্য করে। যেমন...

১. শসা:

১. শসা:

এতে উপস্থিত বেশ কিছু খনিজ হজম ক্ষমতা বাড়িয়ে দেয়। ফলে শরীরে মেদ জমার কোনও সুযোগই থাকে না। সেই সঙ্গে শরীরে যাতে জলের অভাব দেখা না দেয়, সেদিকেও খেয়াল রাখে।

২. ব্রকলি:

২. ব্রকলি:

প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট এবং ভিটামিন থাকার কারণে এই সবজিটি নিয়মিত খেলে রোগ ভোগের আশঙ্কা যেমন কমে, তেমনি মেদও ঝরে।

৩. সেলারি শাক:

৩. সেলারি শাক:

সেলারিতে রয়েছে জল এবং ভিটামিন-কে। এই দুটি উপাদানই চর্বি গলাতে দারুন কাজে আসে। আসলে এই শাকটি খেলে ওজন ক্ষমতার উন্নতি ঘটে। ফলে শরীরে মেদ জমতে পারে না।

৪.টমাটো:

৪.টমাটো:

এই সবজিটিতে রয়েছে টেনিন্স এবং ভিটামিন-সি, যা মাত্রাতিরিক্ত পরিমাণে ক্যালোরি বার্ন করে মেদ কমার প্রক্রিয়াকে আরও ত্বরান্বিত করে।

৫. ক্যাপসিকাম:

৫. ক্যাপসিকাম:

এতে রয়েছে ক্যাপসাইসিন নামে একটি এনজাইম, যা অল্প সময়ে মেদ কমিয়ে ফেলতে সাহায্য করে।

৬. লাউ:

৬. লাউ:

ওজন কমাতে এই সবজিটির কোনও বিকল্প নেই। কারণ লাউয়ে উপস্থিত পটাশিয়াম হজম ক্ষমতা খুব বাড়িয়ে দেয়। ফলে খাবার খাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই তা হজম হয়ে যায়, মেদ জমার কোনও সুযোগই থাকে না।

৭. গাজর:

৭. গাজর:

ফাইবার সমৃদ্ধ হওয়ার কারণে এই সবজটি দ্রুত চর্বি গলিয়ে ফেলতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। সেই সঙ্গে হজম ক্ষমতাও বাড়িয়ে দেয়। ফলে দুদিক থেকে চাপ পাড়ার কারণে নিমেষে ওজন কমতে শুরু করে।

Story first published: Thursday, April 6, 2017, 14:15 [IST]
English summary
Do you often experience frustration and disappointment because of your weight? Well, many of us have been there, and having to constantly worry about your weight is definitely not a good feeling.
Please Wait while comments are loading...