ওষুধ ছাড়াই মাইগ্রেনের মাথাব্যাথার থেকে পরিত্রাণ পাওয়ার সহজ টিপ্স

By: ANINDITA SINHA
Subscribe to Boldsky

একটানা মাথাব্যাথা, চোখে চাপ অনুভব আর আলোর প্রতি সংবেদনশীলতা, এইগুলি মাইগ্রেনের প্রধান কয়েকটি উপসর্গের মধ্যে কয়েকটি। যদি আপনার এই উপসর্গগুলি থেকে থাকে, তবে আপনার অবিলম্বে চেক করানো প্রয়োজন এবং প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সম্বন্ধীয় সাহায্য নেওয়া উচিৎ।

মাইগ্রেনের মাথাব্যাথা, এমন সবথেকে খারাপ শারীরিক সমস্যার মধ্যে একটি, যা কারো হতে পারে। কারো কারো ক্ষেত্রে তো মাইগ্রেনের অ্যাটাক এতোটাই খারাপ যে তাদের হাসপাতালে পর্যন্ত ভর্তি হতে হয়।

তীব্র মাথাব্যাথার সাথে যারা মাইগ্রেনে ভুগছেন তাদের অন্যান্য উপসর্গও যেমন, ঘাড় ব্যাথা, মাথা ঘোরা, বমিবমি ভাব, নাক বন্ধ আর আবছা দৃষ্টি থাকতে পারে।

বিভিন্ন কারণে মাইগ্রেন হতে পারে,- স্ট্রেস, হরমোনের ভারসাম্যহীনতা, খারাপ খাদ্যাভ্যাস, উদ্বেগ, ঋতুজরা বা মেনোপোজ, ওষুধের প্বার্শ-প্রতিক্রিয়া এবং এটা বংশানুক্রমিকও হতে পারে।

মাইগ্রেনের ব্যাথা এতোটাই দুঃসহ হয় যে এই মাথাব্যাথার থেকে বাঁচতে সবার আগে একজন যেটা করে তা হল, যত তাড়াতাড়ি সম্ভব পেইনকিলার খেয়ে ফেলা। কিন্তু এটা এমন একটা জিনিস যা কাউকে এড়িয়ে যাওয়া উচিৎ, কারণ এর অনেক প্বার্শ-প্রতিক্রিয়া আছে এবং একজনের স্বাস্থ্যকে প্রভাবিত করে।

মাইগ্রেনের মাথাব্যাথার থেকে নিস্তার পাওয়ার কিছু টিপ্স এখানে দেওয়া হল। আসুন দেখে নেওয়া যাক।

১. আদাঃ

১. আদাঃ

আদা চা বা শুধু এক টুকরো আদা চিবিয়ে খেলে তা মাইগ্রেনের থেকে ওঠা ব্যাথা থেকে পরিত্রাণ দিতে সাহায্য করে।

২. আঙ্গুরের রসঃ

২. আঙ্গুরের রসঃ

আঙ্গুরের রসে ভিটামিন-সি রয়েছে এবং এর বীজে উচ্চ মাত্রায় রাইবোফ্লাভিন থাকে বলে যানা যায়, যা মাইগ্রেনের মাথাব্যাথার থেকে নিস্তার দিতে সাহায্য করে।

৩. বাদামঃ

৩. বাদামঃ

ম্যাগনেসিয়ামে সমৃদ্ধ বাদাম, ম্যাগনেসিয়ামের ঘাটতি পূরণে সাহায্য করে। এই ঘাটতি প্রায়শই মাইগ্রেন মাথাব্যাথাকে ট্রিগার করে।

৪. ঠান্ডা গরম থেরাপিঃ

৪. ঠান্ডা গরম থেরাপিঃ

কপালের যে জায়গায় আপনি ব্যাথা অনুভব করছেন সেখানে গরম সেঁক দিলে, তা পেশীকে রিল্যাক্স হতে সাহায্য করে আর এইভাবেই মাইগ্রেনের ব্যাথায় আরাম দিতে সাহায্য করে। আরেকদিকে, ঠান্ডা সেঁক দিলে জায়গাটা অবশ হয়ে যাবে আর আপনিও ব্যাথা অনুভব করবেন না।

৫. হার্বাল চাঃ

৫. হার্বাল চাঃ

মেন্থল বা পিপারমেন্ট দিয়ে তৈরি চা গ্যাস্ট্রোইনস্টেটাইনাল নালীর খিঁচুনি, যার হলে বমি বমি ভাব ও মাথাব্যাথা হয়, তা দমিত করে।

৬. সবুজ শাক-সবজিঃ

৬. সবুজ শাক-সবজিঃ

সবুজ শাক, ভিটামিন ও অ্যান্টি-অক্সিডেন্টে সমৃদ্ধ হয়, সেগুলিকে দৈনন্দিন খাদ্যে অন্তর্ভূক্ত করলে তা রক্ত সঞ্চালনকে উন্নত করে আর এইভাবে মাইগ্রেনের মাথাব্যাথা কমাতে সাহায্য করে।

৭. অলিভ ওয়েলঃ

৭. অলিভ ওয়েলঃ

অলিভ ওয়েল শরীরে হরমোনের ভারসাম্যহীনতা, যা মাইগ্রেনের কারণ হতে পারে, তাকে নিয়ন্ত্রণ করতে সাহায্য করে। প্রতিদিনের খাবারে অলিভ ওয়েলের ব্যবহার সাহায্য করে।

৮. কফিঃ

৮. কফিঃ

কফিতে ক্যাফিন রয়েছে। অল্প পরিমাণে কফি পান করলে, তা মাইগ্রেনের মাথাব্যাথা কমাতে সাহায্য করে। বিভিন্ন গবেষণায় এটি প্রমাণিত হয়েছে, কিন্তু আপনাকে নিশ্চিত করতে হবে যে আপনি যেন অতিরিক্ত পরিমাণে এটি পান না করেন।

Story first published: Monday, November 21, 2016, 9:49 [IST]
English summary
Constant headache accompained by pressure on the eyes and sensitivity towards light are a few among the major symptoms of migraine. If you have these symptoms then you need to get it checked immediately and get the necessary medical intervention.
Please Wait while comments are loading...