মোবাইল ফোন ব্যবহারের স্বাস্থ্যের ঝুঁকি

By: tulika
Subscribe to Boldsky

আজকাল প্রযুক্তি ছাড়া বাঁচা সম্ভব নয়। আমরা সবসময় মোবাইল ফোনের মত নানাভাবে প্রযুক্তির উপর নির্ভরশীল এবং আমরা এটা ছাড়া আমাদের জীবন কল্পনা করতেও পারি না|

যদিও বেশির ভাগ মানুষ মনে করেন মোবাইল ফোন ক্যান্সার সৃষ্টি করতে পারে। তাই তো বলতেই হয় আমরা সবাই আমাদের ফোনের প্রতি আসক্ত হয়ে পড়ছি আর অজান্তেই আমরা আমাদের স্বাস্থ্যের অবনতি ঘটাচ্ছি, কিছুটা জেনে, কিছুটা অজ্ঞাতসারে|

মোবাইল স্বাস্থ্যের জন্য বিপদ ও ঝুঁকি সৃষ্টি করে কারণ যতক্ষণ মোবাইল সুইচ অন করা থাকে, ততক্ষণ তারা রেডিও তরঙ্গ নির্গত করে | এর প্রভাবে নানা ক্ষতি হতে তাকে শরীরের।

এই নিবন্ধে আমরা মোবাইল ফোনের বিপদ সম্পর্কে জানব এবং বসবাসের অঞ্চলে মোবাইল ফোন টাওয়ার কতটা বিপদ ডেকে আনতে পারে তা দেখব| একটি গবেষণা থেকে জানা যায় যে মোবাইল ফোনের টাওয়ারের ৫০ থেকে ৩০০ মিটার ব্যাসার্ধের মধ্যে বসবাসকারী মানুষের ইলেক্ট্রোম্যাগনেটিক বিকিরণের কারণে রোগের ঝুঁকি অনেক বাড়িয়ে দেয়। সুতরাং এটা এখন থেক যদি সম্ভব হয়, তাহলে মোবাইল ফোনের টাওয়ার থেকে দূরে থাকার চেষ্টা করবেন। সেই সঙ্গে মোবাইল ফোন যতটা পরবেন দূরে রাখবেন|

মোবাইল ফোন ব্যবহারে স্বাস্থ্যের বিপদ সম্পর্কে জানতে নিবন্ধটি পড়ুন|

ক্যান্সার

একটি গবেষণা প্রমাণ করেছে যে মোবাইল ফোনে রেডিও ফ্রিকোয়েন্সি নির্গত হয়| এটা সুস্পষ্ট যে এই বর্ধিত নির্গমন মোবাইল ব্যবহারকারীদের স্বাস্থ্যের উপর কিছু বিরূপ প্রভাব ফেলে| এটা মস্তিষ্কের টিউমারও সৃষ্টি করতে পারে|

ঘুমের গোলমাল

আপনি কি কখনো ভেবেছেন আপনার ঘুম ভালোভাবে না হওয়ার প্রধান কারণ কি? বিভিন্ন গবেষণায় জানা গেছে যে মোবাইল ফোনের অতিরিক্ত ব্যবহার, এর অন্যতম কারণ হতে পারে| এটা প্রধান অবদান যা আমাদের ঘুমের প্যাটার্নে বাধা হয়ে দাঁড়ায়|

দুর্ঘটনার ঝুঁকি বাড়ায়

মোবাইল ফোন ব্যবহার করার সময় দুর্ঘটনার ঝুঁকি যে বাড়ে তাতে কোনো সন্দেহ নেই| ড্রাইভিং অথবা রাস্তা পারাপারের সময় মোবাইল ফোন দুর্ঘটনার সম্ভাব্য কারণ হতে পারে| গবেষণায় দেখা গেছে, মোবাইল ফোন ব্যবহারের কারণে ট্রাফিক দুর্ঘটনা হওয়ার ঝুঁকি বেড়ে যায়|

হৃদপিণ্ডজনিত সমস্যা

সেল ফোনের বিকিরণ হৃদপিণ্ডের নানা সমস্যার মত ক্রনিক রোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি বাড়ায়| রেডিয়েশন যা কর্ডলেস ফোন, মোবাইল থেকে নিঃসরিত হয় যা হার্ট ফাংশনের অস্বাভাবিকত্ব ঘটায় এবং এটি লোহিত রক্তকণিকার (আরবিসি) গণনা হ্রাস করে। ফলে হৃদযন্ত্রের জটিলতা বাড়ার আশঙ্কা থাকে|

বন্ধ্যাত্ব

মোবাইল ফোন ব্যবহার বন্ধ্যাত্ব ঘটাতে পারে! একটি গবেষণা প্রকাশিত হয়েছে যে মোবাইল ফোন বিকিরণে শুক্রাণু কমে যায়| সুতরাং, আপনি মোবাইল ফোনের কম ব্যবহার নিশ্চিত করুন|

শ্রবণশক্তির হ্রাস

আপনি কি জানেন যে মোবাইলের রেডিয়েশনের কারণে অপনি বধির হেয় যেত পারেন? গবেষণায় দেখা গেছে যে সেল ফোন থেকে নির্গত ইলেক্ট্রোম্যাগনেটিক (ই.এম.) ক্ষেত্রর দীর্ঘমেয়াদী এক্সপোজার শ্রবণশক্তি হ্রাস করতে পারে| অতএব, মোবাইল ফোন কম ব্যবহার করুন|

চোখের সমস্যা

আজকের দিনে ই-বই পড়া সহজ হয়েছে, টেক্সটিং, ওয়েব সার্ফিং এবং ব্রাউজিং-এর পাশাপাশি। আপনি যখন তা করেন, জ্বলজ্বলে পর্দা এবং ছোট ফন্ট আপনার চোখের উপর স্ট্রেন ফেলে, বিশেষত যদি আপনি অন্ধকারে পড়েন| এর থেকে শুষ্ক চোখ, জ্বালা এবং চোখ লাল হতে পারে| তাই মোবাইল থেকে যতটা সম্ভব নিজেকে দূরে রাখুন|

English summary
These days life is nothing without technology. We are always dependant on technologies like mobile phones and we cannot imagine our lives to go on without it.
Please Wait while comments are loading...