সঠিক লিপস্টিকটা কিনছেন তো?

Posted By:
Subscribe to Boldsky

মানে! লিপস্টিকের আবার ঠিক-ভুল কী। দোকানে গেলাম। শেড পছন্দ করলাম। আর কিনে নিলাম। এতে আবার ঠিক সিদ্ধান্ত-ভুল সিদ্ধান্তের কী আছে শুনি! আছে ম্য়াডাম আছে। তাই তো বলি এই লেখাটি একটু পড়ে ফেলুন। তাহলেই পরিষ্কার হয়ে যাবে ছবিটা।

আপনি এ বিষয়ে বিশেষজ্ঞ হলে অথবা বহু দিন ধরে কিনে আসা ব্র্য়ান্ডের বাইরে লিপস্টিক না কিনলে চিন্তার কোনও কারণ নেই। কিন্তু এই দুটির কোনও টার সঙ্গে যদি আপনার মিল না থাকে, তাহলে সাবধান! কারণ, ঠিক ভেবে ভুল লিপস্টিক কিনল তার প্রভাব যে আপনার সৌন্দর্যের উপর পরবে, তা কি আর আলাদা করে বলে দিতে হবে। তাই তো লিপস্টিক কেনার আগে এই প্রবন্ধে আলোচিত বিষয়গুলির দিকে একবার খেয়াল রাখবেন। তাহলেই দেখবেন আর কোনও অসুবিধা হচ্ছে না।

১. শেড:

১. শেড:

যে শেডটা কিনবেন বলে দোকানে এসেছেন, সেটির সঙ্গে আপনার নির্বাচিত লিপস্টিকটির মিল আছে কিনা ভালো করে দেখে নিতে ভুলবেন না। সেই সঙ্গে আপনার কেনা লিপস্টিকটি কোনও সম্পদায় ভুক্ত তা জেনে নেওয়াটাও জরুরি। প্রসঙ্গত, আপনার লুকের সঙ্গে যদি লিপস্টিকের শেডের যথাযথ মিল না হয়, তাহলে কিন্তু খুব বাজে দেখতে লাগবে আপনাকে। তাই শেড নির্বাচনের সময় অতিরিক্ত মনোযোগী হওয়া জরুরি।

২. ফিনিশ:

২. ফিনিশ:

নানা ধরনের ফিনিশওয়ালা লিপস্টিক আজকাল বাজারে পাওয়া যায়। কোনওটা ম্যাট ফিনিশ, আবার কোনওটা ক্রিম ফিনিশ। যাদের ঠোঁট খুব শুষ্ক, তারা যতটা পারবেন ম্যাট ফিনিশ এড়িয়ে চলবেন। অপরদিকে ক্রিম লিপস্টিক বেশিক্ষণ ঠোঁটে থাকতে চায় না। তাই তো বলছি লিপস্টিক কেনার আগে এই বিষয়গুলির দিকেও নজর দেবেন। প্রসঙ্গত, যদি চান লিপস্টিটকা সারা দিন ঠোঁটে লেগে থাকুক, তাহলে ম্যাট ফিনিশ আপনার প্রথম পছন্দ হওয়া উচিত।

৩. আন্ডারটোন:

৩. আন্ডারটোন:

প্রতিটি লিপস্টিকেরই একটা আন্ডারটোন থাকে। কিন্তু বেশিরভাগ মহিলাই সেদিকে খেয়াল না করে লিপস্টিক কিনে নেন। যেমন কিছু লিপস্টিকের শেড নীল আন্ডারটোনের হয়, আবার কিছু হয় হলুদ বা নিউট্রাল। তাই এবার থেকে লিপস্টিক কেনার সময় এই বিষয়টার দিকে একটু খেয়াল রাখবেন। প্রয়োজনে বিশেষজ্ঞের সঙ্গে পরামর্শ করে নেবেন।

৪. ব্র্যান্ড:

৪. ব্র্যান্ড:

নামকরা ব্র্যান্ডের লিপস্টিক কেনাই ভালো। বিশেষ করে অন লাইনে যদি লিপস্টিক কেনেন , তাহলে ব্র্যান্ডেড প্রডাক্ট ছাড়া কিনবেনই না।

৫. নুড লিপস্টিক:

৫. নুড লিপস্টিক:

অন লাইনে কোনও দিন নুড লিপস্টিক কিনবেন না। অনেক সময় কেনার সময় এইসব লিপস্টিকের যে টোন থাকে, কয়েকবার ব্য়বহাকেক পর তা আর পাওয়া য়ায় না। তাই এমন ধরনের লিপস্টিক কেনার আগে সব সময় যাচাই করে নেবেন। এমনটা করলে ঠকায় সম্ভবনা কমবে।

Read more about: টিপস
English summary
Buying a lipstick seems simple enough, just go to a store and pick up whatever you like, right? No, there's much more than just doing that. So, we will tell you about a few things you can try to remember when buying a lipstick.
Please Wait while comments are loading...