মুখে খুব ঘাম হয়? এই সমস্যা কমাতে পারে এই সহজ পদ্ধতিগুলি!

Posted By:
Subscribe to Boldsky

গরমের সময় নানা ধরনের সমস্যা দেখা দেয়। যার মধ্যে অন্যতম হল মাত্রাতিরিক্ত ঘাম হওয়ার প্রবণতা। সারা গায়ে ঘাম হলে তবু ঠিক আছে। কিন্তু যাদের কেবলমাত্র মুখ এবং তৎসংলগ্ন অংশে বেশি মাত্রায় ঘাম হয়, তাদের কিন্তু থুব বেশি কষ্ট সহ্য করতে হয়। একবার ভাবুন তো সারা মেখটা তেলতেলে হয়ে গেছে। তার উপর ঘাম হয়েই যাচ্ছে। এমন অবস্থায় মুখের সৌন্দর্যের কী হাল হবে! এক্ষেত্রে মেকআপও কিছু কিছু সময় কোনও কাজে আসে না। ফলে সারা গরমকালটা এমন চ্যাপ চ্যাপে মুখ নিয়ে কাটিয়ে দেওয়া ছাড়া আর কোনও উপায় থাকে না।

আপনার অবস্থাও কি একই রকম? তাহলে এই প্রবন্ধেটি এক্ষুনি পড়ে ফেলতে হবে আপনাকে। কারণ এই লেখায় এমন কিছু সহজ পদ্ধতি সম্পর্কে আলোচনা করা হয়েছে, যা অক্ষরে অক্ষরে মেনে চললে অতিরিক্ত ঘামের সমস্যাকে নিয়ন্ত্রণে আনতে সময়ই লাগে না।

কী সেই সব পদ্ধতি? চলুন জেনে নেওয়া যাক সে সম্পর্কে।

১. ঠান্ডা জল দিয়ে বারে বারে মুখ ধুতে হবে:

১. ঠান্ডা জল দিয়ে বারে বারে মুখ ধুতে হবে:

এমনটা করলে ত্বকের ছিদ্রগুলি বন্ধ হয়ে যাবে। ফলে ঘাম হওয়া বন্ধ হবে। তাই যখন দেখবেন অতিরিক্ত ঘাম হচ্ছে, তখনই মুখে ঠান্ডা জলের ঝাপটা দেবেন। এমনটা করলে নিমেষে ত্বক পরিষ্কার এবং সুন্দর হয়ে উঠেছে।

২. অল্প করে পাউডার লাগান:

২. অল্প করে পাউডার লাগান:

অতিরিক্ত ঘাম শুষে নিতে পাউডারের কোনও বিকল্প নেই বললেই চলে। তাই এই ধরনের সমস্যা কমাতে আজ থেকেই এই ঘরোয়া পদ্ধতিটিকে কাজে লাগাতে শুরু করুন। প্রয়োজনে অল্প সময় অন্তর অন্তর মুখে পাউডার লাগান। দেখবেন ঘাম হওয়া একেবারে কমে যাবে।

৩. বরফ লাগান মুখে:

৩. বরফ লাগান মুখে:

পরিষ্কার একটা কাপড়ে কয়েক টুকরো বরফ নিয়ে নিন। তারপর সেই কাপড়াটা বেঁধে নিয়ে মুখের উপর কিছুক্ষণ রেখে দিন। এমনটা করলে ত্বকের ছিদ্রগুলি বন্ধ হয়ে যাবে। ফলে ঘাম আর হবে না।

৪. শসার রসকেও কাজে লাগাতে পারেন:

৪. শসার রসকেও কাজে লাগাতে পারেন:

রাতে শুতে যাওয়ার আগে অল্প করে শসার রস মুখে লাগিয়ে নিন। পরদিন সকালে উঠে মুখটা ধুয়ে ফেলুন। এমনটা সারা গরমকাল করতে পারলেই কেল্লাফতে!

৫. তৈলাক্ত কিছু মুখে লাগাবেন না:

৫. তৈলাক্ত কিছু মুখে লাগাবেন না:

অতিরিক্ত ঘাম হওয়ার কারণে এমনই মুখ তেলতেলে হয়ে থাকে। তার উপরে যদি তৈলাক্ত কোনও ক্রিম মুখ লাগান তাহলে পরিস্থিতি আরও খারাপ হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে। তাই এমন ভুল কাজ কিন্তু একেবারেই করবেন না।

৬. বেশি মেককাপ করবেন না:

৬. বেশি মেককাপ করবেন না:

যাদের মুখ মন্ডলে খুব ঘাম হয়, তাদের গরমকালে যতটা সম্ভব কম মেকআপ করতে হবে। না হলে কিন্তু বিপদ! কেন? আসলে মেকআপ করলে ঘাম হওয়া আরও বেড়ে যায়। ফলে সমস্যা তো কমেই না, উল্টে বেড়ে যায়। আর বেশি মাত্রায় ঘাম হলে ত্বকের যে কী হাল হয়, তা নিশ্চই আর বলে দিতে হবে না।

৭. অ্যাপেল সিডার ভিনিগার:

৭. অ্যাপেল সিডার ভিনিগার:

এতে রয়েছে প্রচুর মাত্রায় অ্যালকালাইন প্রপাটিজ, যা ঘামকে নিয়ন্ত্রণে আনতে ম্যাজিকের মতো কাজ করে। তাই তো এই গরমকালে এই উপাদানটি আপনার প্রিয় বন্ধু হয়ে উঠতে পারে। এক্ষেত্রে অল্প করে ভিনিগার নিয়ে পরিমাণ মতো জলে মিশিয়ে নিন। তারপর সেই জল দিয়ে ভাল করে মুখটা ধুয়ে নিন। সপ্তাহে একবার এই পদ্ধতিতে ত্বকের পরিচর্যা করলেই অতিরিক্ত ঘাম হওয়া একেবারে কমে গেছে।

Read more about: beauty
Story first published: Friday, April 21, 2017, 17:51 [IST]
English summary
Excessive facial sweating is an annoying and highly unpleasant issue that countless women experience during the summer season. Too much sweating is quite normal during hot days and nights; however, when it happens on your face, it can single-handedly affect your beauty quotient and also make you conscious of your skin.
Please Wait while comments are loading...