মুখ ব্লিচ করার আগে তার নেতিবাচক পার্শ্বক্রিয়াগুলো জেনে রাথা খুব দরকার!

By: Riddhi Ghosh
Subscribe to Boldsky

মুখের লোম দেখে যতটা না আর্তনাদ করে উঠি তার চেয়ে বেশি যন্ত্রণা পাই ওয়াক্সিং করে মুখের লোম তুলতে গেলে।তাই বিকল্প ব্যবস্থা হিসেবে আমরা ব্লিচিং-এর পদ্ধতি আপন করি লোম লোপাট করতে,কিন্ত তার অনেক খারাপ দিকও আছে।

স্যালন হোক বা বাড়ি,আমরা যেখানেই করি না ব্লিচ,আগে ভাল করে বুঝে নিন মুখে ক্ষতিকারক কেমিক্যাল-এর প্রলেপ লাগানোর আগে।অনেকেই আছে রুপচর্চার সামগ্রী ব্যবহারের আগে দুবার ভেবে দেখেন না। আর যখন সেই পদ্ধতি আশানুযায়ী ফল দেয় না তখন হয়ত পরিস্থিতি আশঙ্কারজনক অবস্থায় পৌঁছয়।আপনি যদি আপনার মুখের লোমের থেকে রেহাই পেতে চান বা মুখের বিবর্ণতা ঠিক করতে বিল্চ ব্যবহার করার কথা ভাবছেন তাহলে সত্যি কথা বলি এই সিদ্ধান্তর জন্য আপনি অনুতপ্ত হতে পারেন।যদিও আমরা এরকম হবে আশা করিনা তবে আগে থেকে জানিয়ে রাথা ভাল যে একটা প্যাকেট কেটে প্রয়োগ করার আগে যাতে আপনার রুপ ও স্বাস্থ্যে যথেচ্ছ ক্ষতি না হয়।ব্লিচিং-এর খারাপ পার্শ্বক্রিয়াগুলো বলার আগে একটা কথা একটু পরিষ্কার করে বলে দিই। মুখে লাগানোর ব্লিচ শুধু আপনার মুখের ত্বকের জন্যই, শরীরের জন্য নয়।আবার শরীরে লাগানোর ব্লিচ শরীরের জন্যই,মুখের জন্য উপযোগী নয়।এই প্রবন্ধে আমাদের মূল উদ্দ্যেশ্য হল আপনাদের ব্লিচ ব্যবহার করার নেতিবাচক পার্শ্বক্রিয়া...

মুখ ব্লিচ করার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া

মারাত্মক এ্যালার্জিক প্রতিক্রিয়া
মুখের ব্লিচ সবার জন্য ভাল হয়না।আপনার আগে নিজের ত্বকের ধরণটা বুঝতে হবে।নিশ্চিত হতে হবে যে আপনার ত্বকের ক্ষমতা আছে কি না ব্লিচে থাকা কেমিক্যালের মোকাবিলা করার। তার কারণ ব্লিচিং-র মারাত্মক খারাপ পার্শ্বক্রিয়া হল এ্যালার্জি!ব্লিচ প্রয়োগ করলে মুখে জ্বালা বা চুলকানি অথবা দুটোই হতে পারে।এর ফলস্বরুপ আপনার অসম্ভব যন্ত্রণা,চামড়া শক্ত হয়ে যাওয়া বা লাল ছোপ হয়ে চামড়া ফুলে উঠতে পারে। এরকম পরিস্থিতে হলে তৎক্ষণাত ডাক্তারি পরামর্শর দরকার হয়ে পড়ে।

পারদের সর্বনাশা প্রভাব
ব্লিচিং-র আর একটা ভয়ানক খারাপ দিক হল এর মধ্যে থাকা কিছু উপাদান যা আপনার স্বাস্থ্যে দীর্ঘকালিন ক্ষতি করতে পারে। ব্লিচে সাধারণত পারদ থাকে যা ব্যবহার না করাই ভাল, বা ব্যবহার করলেও খুব কম।তার কারণ পারদ শুথু বিষাক্তই নয়,এটা আপনার কোষে জমতে শুরু করলে আপনার লিভার ও কিডনির ক্ষতি করে তাদের অকৃতকার্য্য করে দিতে পারে।

চোখ লাল হয়ে যাওয়া
ব্লিচিং এজেন্টের শক্তিশালী বাজে গন্ধ থাকে যার ফলে প্রস্তুতকারকরা তাতে প্রচুর সুগন্ধি দিয়ে থাকে।এর থেকে সৃষ্টি হয় ব্লিচিং-র আরও একটা খারাপ দিক মুখের জন্য।কেমিক্যালের ধোঁয়া আপনার চোখ লাল করে দিতে পারে ও তার থেকে জ্বালায় আপনার চোখ থেকে জলও পড়তে পারে।

এগুলো হল ব্লিচিং-র কিছু প্রতিক্রিয়া মাত্র। আরও খারাপ দিক জানতে চান, তাহলে জানান!

Read more about: ত্বকচর্চা
English summary
Seeing those facial hair does not make us freak out as much as the painful way of getting rid of facial hair through waxing does and hence, we look for easier and less painful alternative to fight facial hair through face bleach.
Please Wait while comments are loading...